সৌগত চক্রবর্তী: এনআরসি, ক্যা ও এনপিআর–‌‌এর বিরুদ্ধে মন্ত্রী ব্রাত্য বসুর উদ্যোগে এবার পথনাটক নিয়ে রাস্তায় নামল দমদম বিধানসভা কেন্দ্রের সাইবার উইংস ‘‌ডিজিটাল দমদম’‌। দমদম ক্লাব সমন্বয় সমিতির সামনের রাস্তায়, দমদম রোডে। ‘‌কাগজ বাবা’‌ নামে এই নাটকের সামগ্রিক পরিকল্পনা ও রূপায়ণে আছেন মন্ত্রী ও নাট্যব্যক্তিত্ব ব্রাত্য বসু।
নাটকের আগে এক সাংবাদিক বৈঠকে ব্রাত্য বসু বললেন, ‘‌এর আগে জিএসটি নিয়ে এবং এখন এনআরসি নিয়ে জননেত্রী ও পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি সরব হয়েছেন। এবং সেই সুরে আজকে প্রতিবাদ করছে শাহিনবাগ, পার্কসার্কাস, জামিয়া মিলিয়ার প্রথমত ছাত্রসমাজ ও পরে নাগরিক সমাজ। বিভিন্ন জায়গায় এই আন্দোলন ছড়িয়ে পড়েছে।’‌ বললেন, ‘‌যেহেতু আমার থিয়েটারের একটা পরিচিতি আছে, তাই আমি ভাবছিলাম এই আন্দোলনের পক্ষে একটা পথনাটক নিয়ে নামা যায় কিনা। তাই এই ২০ মিনিটের নাটক। বিষয় এনআরসি এবং সিএএ। নাটকটি লিখেছেন অভি চক্রবর্তী। বাংলায় এই প্রথম এনআরসি এবং সিএএ–‌‌কে বিষয় করে কোনও নাটক প্রযোজিত হল।’‌
ব্রাত্য বসু জানালেন, ‘‌এই নাটক শুধু পুরভোটকে কেন্দ্র করে অনুষ্ঠিত হবে তা নয়। যতদিন না কেন্দ্রের সরকার এই কালো প্রস্তাব বাতিল করেন ততদিন এই নাটকের অভিনয় চলবে। অন্তত একহাজারটি শো হবে এই নাটকের। পশ্চিমবঙ্গের প্রত্যেক জেলাতেই এই অভিনয় হবে। যে কোনও রাজনৈতিক কর্মসূচির আগেই নামমাত্র অর্থের বিনিময়ে এই নাটকটির অভিনয় হবে।’‌
অংশুমান করের লেখা ‘‌আমার একটা কাগজ চাই’‌ কবিতাই এই নাটকের প্রাণভোমরা। এই নাটকে অভিনয় করেছেন বিশ্বরূপ চট্টোপাধ্যায়, দীপা নট্ট, ইভলিন কৌর, বিকি পাল, সায়ন দাস, উত্তরা দে, শুক্লা হালদার, মৌসুমি কুণ্ডু, স্বর্ণদীপ ধর, সায়নিতা ভট্টাচার্য, অভিষেক দত্ত, অঞ্জন হোড় প্রমুখ। এঁরা সবাই দমদমের বাসিন্দা এবং পেশাদার অভিনেতা নন। কিন্তু এনআরসি এবং সিএএ–‌‌এর বিরুদ্ধে মানুষের সচেতনতা তৈরির জন্য এই পথনাটক নিয়ে অভিযান শুরু করলেন। নাটকের বিশেষ সহযোগিতায় আছেন প্রসেনজিৎ বর্ধন ও নয়নাশিস দাস।
নাটকের কেন্দ্রে আছে ‘‌কাগজ বাবা’‌। নাটকের মধ্যে যখন একে একে কেন্দ্রের সরকারের একের পর এক চক্রান্ত ফাঁস হয়ে যাচ্ছিল, তখন মুগ্ধ হয়ে হাততালি দিতেও ভুলে গিয়েছিলেন দর্শকরা। আর নাটকের শেষ দৃশ্যে যখন কুশীলবরা হাওয়ায় উড়িয়ে দিচ্ছেন কাগজ, তখন হাততালিতে ফেটে পড়লেন দর্শকরা। গোটা নাটকটাই দর্শক হিসেবে দেখছিলেন ব্রাত্য বসু। নাটক শেষে কুশীলবদের উৎসাহ দিলেন। তাদের সঙ্গে হাতে হাত মিলিয়ে পথে নামলেন। জানালেন, আজ শনিবার বিকেলে দ্বিতীয় বার্ষিক ‘‌নাট্যজন নাট্যোৎসব’–‌‌এ‌ আবার রাস্তায় মঞ্চস্থ হবে এই নাটক। জানিয়ে দিলেন, ‘‌আজ ২১ ফেব্রুয়ারি। বাঙালির আত্মবলিদান দিবস। এই বাংলা সবসময়ই গর্জে উঠেছে অন্যায়ের বিরুদ্ধে। বাংলা আবার প্রমাণ করেছে যে তারা আজ যা ভাবে, গোটা দেশ আগামীতে তাই গ্রহণ করে। জাতের নামে বজ্জাতির বিরুদ্ধে পথনাটকের এই অভিযান চলছে, চলবে।‌‌‌‌

ভাষা দিবসে ‘‌কাগজ বাবা’‌ পথনাটকে শিল্পীদের উৎসাহ দিতে তঁাদের সঙ্গে পথে ব্রাত্য বসু। দমদম রোডে, শুক্রবার। ছবি:‌ সুপ্রিয় নাগ

জনপ্রিয়

Back To Top