আজকালের প্রতিবেদন: সাতখানা হাতেগরম নতুন বই। সঙ্গে আরও দেড় ডজন পুরনো বইয়ের পুনঃপ্রকাশ। প্রকাশ করল ‘‌আজকাল’‌। মঙ্গলবারের ভরা বিকেলে। বইমেলার এসবিআই অডিটোরিয়ামে। এক ঝাঁক নক্ষত্রের উপস্থিতিতে উদ্বোধন হল সে–সব বইয়ের। অক্ষরের ঔজ্জ্বল্য, বাগ্‌বৈদগ্ধ্য আর গ্ল্যামার মিলেমিশে ভেঙে দিল সিনেমা আর সাহিত্যের মাঝের বেড়াটা। বোঝা গেল, ‘‌বই’‌ বলতে যে বাঙালি গ্রন্থ বোঝে, এবং সিনেমাও বোঝে, ঠিকই বোঝে।নতুন আসা রুপোলি মোড়ক–‌বাঁধা বইগুলো যখন মঞ্চে এল উদ্বোধনের জন্য, সেখানে তখন চাঁদের হাট। কবি থেকে চিকিৎসক। পরিচালক থেকে অভিনেত্রী। চিত্রকর থেকে নাট্যকার। সার বেঁধে বসে শুভাপ্রসন্ন, মনোজ মিত্র, গৌতম ঘোষ, সুবোধ সরকার, গার্গী রায়চৌধুরী, স্বপ্নময় চক্রবর্তী, ডাঃ কৌশিক লাহিড়ী, ড.‌ সৈকত মিত্র, বৈদ্যনাথ মুখোপাধ্যায়, সঙ্গীতা ঘোষ, শিবপ্রসাদ মহারাজরা। সঙ্গে আজকালের চেয়ারম্যান সত্যম রায়চৌধুরী। উদ্বোধন পর্ব চলতে চলতেই এসে পৌঁছলেন পরিচালক তরুণ মজুমদার এবং অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তও। সত্যমবাবু জানালেন, আজকাল‌ প্রকাশনার যে বইগুলি পাওয়া যেত না, সেগুলি আবার নতুন করে ছাপা হচ্ছে। ব্যক্তিগত স্মৃতিচারণের ঢঙে তিনি বললেন, জীবনে কখনও কখনও বন্ধু কমে যাওয়া বই পড়ার অবসর বাড়িয়ে দেয়। গৌতম ঘোষ বললেন, বই ও সিনেমা একে অপরের পরিপূরক। তাঁর কথারই যেন প্রতিধ্বনি ছিল তরুণ মজুমদারের কথায়। তরুণবাবুর নতুন ছবি ‘‌ভালোবাসার বাড়ি’‌ মুক্তি পাচ্ছে আগামী শুক্রবার। ‌আজকাল‌–‌এর বই প্রকাশের মঞ্চেই ছিল সে–‌ছবিরও প্রচার অনুষ্ঠান। তরুণবাবু বললেন, পৃথিবীটা এখনও সুন্দর, বাঁচার যোগ্য, এই কথাটাই তাঁর আগামী ছবির উপজীব্য। প্রসঙ্গত, ওই ছবির চিত্রনাট্য তৈরি হয়েছে প্রচেত গুপ্তর যে গল্পের ভিত্তিতে, তা ‌আজকাল‌–‌এই প্রকাশিত হয়েছিল। ছবির নায়িকা ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত বললেন, এই ছবির সঙ্গে মধ্যবিত্ত দর্শক একাত্মবোধ করবে।
অনুষ্ঠানের শুরু শিবপ্রসাদ মহারাজের মন্ত্রোচ্চারণে আর অতিথিদের সমবেত প্রদীপ প্রজ্বলনে। উদ্বোধনী সঙ্গীত পরিবেশন করেন মাণ্ডবী চক্রবর্তী। গার্গী রায়চৌধুরী বলেন, ‘‌বইকে আজও শেষ পারানির কড়ি ভাবি। পুজোয় নতুন জামার গন্ধ যেমন ভাল লাগে, তেমন প্রতিদিনই ভাল লাগে নতুন বইয়ের গন্ধ।’‌ ‌আজকাল‌–‌এর শুরুর দিনগুলি থেকেই এই কাগজের গুণগ্রাহী শুভাপ্রসন্ন স্মৃতিচারণ করেন। আজকাল‌–‌এর মধ্যপর্বে নতুন ভাবনাচিন্তার প্রচলনের কথা বলেন সুবোধ সরকার। বক্তব্য পেশ করেন মনোজ মিত্র, স্বপ্নময় চক্রবর্তীরাও। আজকাল স্টলে এদিন সন্ধেয় গিয়েছিলেন রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী। ‌

জনপ্রিয়

Back To Top