Golf Green Suicide: মনোবিদের পরামর্শেও হল না শেষরক্ষা, অবসাদে আত্মঘাতী নরেন্দ্রপুরের মেধাবী ছাত্র

আজকাল ওয়েবডেস্ক: উৎসবের মরসুমে মনে শান্তি ছিল না। মানসিক অবসাদ কাটাতে না পেরে আত্মঘাতী হলেন নরেন্দ্রপুর রামকৃষ্ণ মিশনের মেধাবী ছাত্র। মৃতের নাম মৃন্ময় মুখার্জি। বয়স কুড়ি বছর। নরেন্দ্রপুর রামকৃষ্ণ মিশন কলেজের ফিজিক্স অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন মৃন্ময়। গল্ফগ্রিনের একটি বাড়িতে ভাড়া থাকতেন তিনি। সঙ্গে থাকতেন তাঁর মা ও বাবা। মেধাবী ছাত্র মৃন্ময়ের বাবা মৃণাল বাবু সল্টলেকের একটি হোটেলে কাজ করতেন। কিন্তু করোনা চলে আসার পর চাকরি হারান তিনি। যার ফল আর্থিক অনটন। জানা গিয়েছে, এই নিয়ে খুব চিন্তিত ছিলেন মৃন্ময়। নিজের পড়াশোনার খরচ, সংসারের এই আর্থিক দুরাবস্থা ও আরও নানা বিষয়ে মনঃকষ্টে দুশ্চিন্তায় অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়েন তিনি। মনোবিদ অর্ঘ্য দাসের কাছে চিকিৎসাও চলছিল তাঁর।

কিন্তু তাতেও কাজ হল না। মনের অসুখ কাটিয়ে উঠতে পারলেন না মৃন্ময়। ষষ্ঠীর দিন নিজেই আত্মঘাতী হন তিনি। দীর্ঘক্ষণ ধরে ঘরবন্দি হয়ে থাকা ছেলের সাড়াশব্দ না পেয়ে মা মৃণালবাবুকে ফোন করেন। মৃণালবাবু তখন যশিডিতে ছিলেন এক আত্মীয়ের বাড়ি। তারপরই রাতে দরজা ভেঙে উদ্ধার হয় দেহ।

আরও পড়ুন: পুজোর কোন দিন থেকে শুরু বৃষ্টি?‌ সপ্তমীতে কেমন থাকবে আবহাওয়া?‌

সেই রাতেই এসএসকেএম হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে মৃন্ময়কে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। যদিও প্রাথমিকভাবে আত্মহত্যা মনে করা হলেও তা নিশ্চিত করতে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয় দেহ।