আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ‌বাজারেও যেমন ভিড়, তেমনই রাস্তাঘাটের চিত্র। লকডাউন অমান্য করেই মানুষ কিন্তু বাইরে বেরচ্ছেন। বৃহস্পতিবার সকালে সেই ছবিই দেখা গেল উল্টডাঙা বাজারে। উল্টোডাঙা মোড়ে রাস্তায় গাড়ির সংখ্যা অল্প হলেও পুলিশ কর্মীদের দাবি, একেবারে অনাবশ্যক কারণেই বাইরে বেরচ্ছেন সাধারণ মানুষ। যে সব গাড়ি চলেছে, সেগুলি থামিয়ে রাস্তায় বেরনোর কারণ জিজ্ঞাসা করেছেন পুলিশ কর্মীরা। দেখতে চাইছেন কাগজপত্র। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা গিয়েছে, হাসপাতাল বা ব্যাঙ্ক কর্মীরা গাড়িতে কর্মস্থলে যাচ্ছেন। তবে কেউ কেউ ছলচাতুরি করে পুলিশকে ফাঁকি দেওয়ার চেষ্টাও করে বলে অভিযোগ। পুলিশ সূত্রে দাবি, একটি গাড়িতে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের ভুয়ো স্টিকার লাগিয়ে আজ সকালে উল্টোডাঙা মোড়ে তিনজন যাচ্ছিলেন। পুলিশ চ্যালেঞ্জ করলে তাঁরা প্রমাণ দিতে পারেননি। পুলিশ তাঁদের ফিরিয়ে দেয়। পুলিশ সূত্রে দাবি, মোটরবাইকে দু’‌যুবক এক বছরের পুরনো প্রেসক্রিপশন নিয়ে উল্টোডাঙা মোড় দিয়ে যাচ্ছিলেন। তাঁদেরও পুলিশ ফিরিয়ে দেয়।
বুধবার শহরের গুরুত্বপূর্ণ বাজারগুলি থেকে যেসব ছবি উঠে আসছিল, সেই দৃশ্য বৃহস্পতিবারেও। টানা ২১ দিন লকডাউন চললেও নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী যে কিনতে পারবেন, এই সহজ সত্যটাই ভুলে যাচ্ছেন সাধারণ মানুষেরা। ফলে কাতারে কাতারে লোক রোজ সকালে বাজারে গিয়ে হাজির হচ্ছেন। এতে করোনা সংক্রমণের আশঙ্কা আরও বেড়ে যাচ্ছে। রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে বারবার সচেতনতা অবলম্বন করার কথা বলা হলেও শুনছেনই না সাধারণ মানুষ।

জনপ্রিয়

Back To Top