আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট)-এর এক মেধাবী ছাত্রকে পিটিয়ে খুনের ঘটনায় বাংলাদেশ উত্তাল। কয়েকদিন আগেই ভারত সফরে এসেছিলেন হাসিনা। কুমিল্লায় ফেনি নদীর জল ত্রিপুরায় পাঠানোর বিষয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন তিনি। ভারতের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাম্প্রতিক চুক্তির সমালোচনা করে ফেসবুকে একটি পোস্ট করেন আবরার ফাহাদ নামে ইলেক্ট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ওই ছাত্র। রবিবার সন্ধ্যায় শাসক দলের অনুগামী সংগঠন ছাত্রলিগের নেতারা তাঁকে ডেকে পাঠায়। রাত দুটোর সময়ে মেলে তাঁর নিথর দেহ। ময়নাতদন্তে জানা গিয়েছে, লাঠি ও ক্রিকেটের উইকেট দিয়ে বেধরক মারধর করায় শরীরের ভেতরে রক্তক্ষরণ হয়ে আবরারের মৃত্যু হয়েছে। সিসিটিভি ফুটেজে দেখা গিয়েছে, ছাত্রলিগের নেতা-কর্মীরা তাঁকে ফেলে মারধর করছে। অভিযোগ, আবরারকে মারধর করা হচ্ছে খবর পেয়ে তাঁর সহপাঠীরা হোস্টেলের কর্মীদের খবর দিলেও তাঁরা আসেননি। সোশ্যাল মিডিয়ায় তার ব্যক্তিগত মতামত প্রকাশের জেরে খুন হতে হয়েছে আবরারকে, মত বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ ছাত্ররা এ ঘটনার পর নিন্দা-ক্ষোভ, প্রতিবাদ ও বিচার দাবির ঝড় ওঠেছে সেই সোশ্যাল মিডিয়ায়। 
ঘটনায় যুক্ত থাকার অভিযোগে এখনও পর্যন্ত ১৪ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। জানা গিয়েছে, তারা ওই বিশ্ববিদ্যালয়েরই ছাত্র। হত্যাকারীদের কঠোর শাস্তির দাবিতে ঢাকায় বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে অবস্থান বিক্ষোভ শুরু করেছেন সাধারণ ছাত্ররা। অধ্যাপকেরাও তাঁদের সমর্থনে এগিয়ে এসেছেন। দোষীদের কঠোরতম শাস্তি ও উপাচার্যের ইস্তফারও দাবি জানিয়েছেন তাঁরা। বুধবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাংবাদিক বৈঠক করে জানিয়েছেন, হত্যাকারীরা কোন দলের সঙ্গে যুক্ত, তা না দেখেই সর্বোচ্চ শাস্তি দেওয়া হবে তাঁদের। তিনি বলেন, ‘‌অপরাধী অপরাধীই। কারও দাবির অপেক্ষায় থাকি না। আগেই আমি নির্দেশ দিয়েছি। গ্রেফতার হয়েছে। যত রকম উচ্চ শাস্তি আছে, সেটা দেওয়া হবে।’‌ 
ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় জানান, সংগঠনের সহ-সভাপতি ইয়াজ আল রিয়াদ এবং সম্পাদক আসিফ তালুকদারকে নিয়ে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে এবং ২৪ ঘন্টার মধ্যে তাঁদের বক্তব্য পেশ করতে বলা হয়েছে। মি. জয় বলেন, ‘‌এই ঘটনার সঙ্গে ছাত্রলিগের কেউ যদি জড়িত থাকে তাহলে তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’‌ সংবাদমাধ্যমে মি. জয় বলেন, ‘‌অনেক সময় অতি উৎসাহী কিছু নেতা-কর্মী ক্ষমতা প্রদর্শনের জন্য এধরণের কাজ করে ফেলেন। ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে এ ধরনের ঘটনাকে কোনওভাবে সমর্থন করা হবে না।’‌

জনপ্রিয়

Back To Top