আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ করোনাভাইরাস নিয়ে যখন দেশ তথা বিশ্ব উদ্বেগের মধ্যে রয়েছে তখন ফের সক্রিয় হতে দেখা গেল লিকার ব্যারণ তথা ঋণখেলাপি পলাতক শিল্পপতি বিজয় মালিয়াকে। মঙ্গলবার সকালে সহানুভূতির বার্তা দিয়ে বসলেন। জানালেন, তিনি এখনও ১০০ শতাংশ টাকা ফেরত দিতে চান। নিজের কোম্পানি কিংফিশার এয়ারলাইন্সের পক্ষ থেকে। যা তিনি নিয়েছিলেন। তা ফেরত দিতে চান ব্যাঙ্ককে। যদিও মাঝেমধ্যে এমন দাবি তাঁকে করতে দেখা গেলেও টাকা দিতে দেখা যায়নি বলেই খবর।
এই বিষয়ে তিনি যুক্তি দিয়েছেন, বারবার টাকা ফেরত দেওয়ার প্রস্তাব দিলেও ব্যাঙ্কের পক্ষ থেকে কোনও উৎসাহ দেখা যায়নি। তাঁর দাবি, ‘‌এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের পক্ষ থেকেও কোনও উৎসাহ দেখছি না আমার কোম্পানির যে সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে তা মুক্ত করার ক্ষেত্রে। আমি দেশের অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমনের কাছে আর্জি জানাচ্ছি, এখন দেশের কঠিন সময়ে আমার কথা শুনুন। দেশ এখন করোনাভাইরাসের সঙ্গে লড়াই করছে।’‌ এবারও তিনি নিজের কাঁধ থেকে দোষারোপের অভিযোগ সরিয়ে সরকারের ঘাড়ে চাপিয়ে দিলেন বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।
এমনকী দেশজুড়ে লকডাউন পরিস্থিতি নিয়েও কেন্দ্রীয় সরকারকে বিঁধেছেন তিনি। সরাসরি তাঁর অভিযোগ, এটা একটা অভাবনীয় পদক্ষেপ। লকডাউনের জেরে সমস্ত কোম্পানি বন্ধ হয়ে রয়েছে। অথচ কর্মীদের বাড়িতে টাকা পাঠাচ্ছেন না। সরকারেরও কোনও সাহায্য নেই। তবে টুইটে তিনি সোশ্যাল ডিস্ট্যান্সিংয়ের ওপর জোর দিয়েছেন।

জনপ্রিয়

Back To Top