আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ‌ব্যাচেলর জীবন। হস্টেল বা শেয়ার করা ফ্ল্যাটে থাকছেন। একে তো কাজের চাপ। তার ওপরে রান্নাবান্না। এর মধ্যে বাড়ি পরিষ্কার রাখাটা একপ্রকার অতিরিক্ত কাজ বলে মনে হয় না? কিন্তু ধরে নিন, আপনার যদি এরকম রুমমেট থাকেন, যিনি আপনাকে ব্যতিব্যস্ত না করেই আপনার ঘর গুছিয়ে রাখবেন, তাহলে? এত সুখ থাকে কি কপালে? দেখা যাচ্ছে, জেন্নার কপালে হেব্বি সুখ। তাঁর রুমমেট স্যাম স্মিথবার্গার তাঁকে না জানিয়ে সারপ্রাইজ দেওয়ার জন্য তাঁর চূড়ান্ত অগোছালো ঘরকে টিপটপ করে গুছিয়ে রাখলেন। বাথরুম পরিষ্কার করে ভ্যাকুয়াম ক্লিনার দিয়ে সারা ঘরের ময়লা সাফ করে অপূর্ব সুন্দর একটা ঘরে পরিণত করে দিলেন জেন্নার ‘‌ঘর’‌ নামক ওই স্থানটির। আর গোটা প্রক্রিয়াটি ভিডিও করে সোশ্যাল মিডিয়াতেও পোস্ট করলেন তিনি। ছ’‌ঘণ্টার এই খাটনির কারণ, তাঁর বন্ধু একদিন একটু ভাল করে ঘুমোক।‌ ভিডিওটি পোস্ট করে তিনি লিখলেন, ‘‌ছ’টি ক্লাস, দু’‌টি চাকরি, একটা ইন্টার্নশিপ সামলে আমার বন্ধুর অবস্থা খুব খারাপ। ওর ঘরটা আমি গুছিয়ে দিচ্ছি যাতে একদিন জেন্না ভাল করে ঘুমোতে পারে।‌’‌ নেটিজেনদের মধ্যে অধিকাংশই স্যামের প্রশংসায় পঞ্চমুখ। কেউ কেউ আবার বলছেন, অনুমতি ছাড়া সবাইকে জেন্নার ঘর দেখানো বা তাঁর ঘর পরিষ্কার উচিত নয়। কিন্তু সমালোচকদের ভুল প্রমাণিত করে জেন্না তাঁর বন্ধু স্যামকে সঙ্গে নিয়ে একটি ছবি পোস্ট করেন। দেখা যায়, দু’‌জনে মিলে পরিষ্কার করা নতুন ঘরে একটি কেক সামনে নিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন। তাহলে?‌ এরকম কপাল আপনাদেরও হতে পারে বলেই মনে হচ্ছে তো এবার?‌ ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top