আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ভারতে ইতিমধ্যেই টিকটক সহ ৫৯টি চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ হয়েছে। এবার সেই পথে হাঁটতে পারে আমেরিকাও। ভানাচিন্তা ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে। একটি মার্কিন সংবাদমাধ্যমকে জানালেন মার্কিন বিদেশ সচিব মাইক পম্পেও। 
পম্পেও বললেন, ‘প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প কিছু ঘোষণা করার আগে আমি এই নিয়ে কিছু বলতে চাই না। তবে আমরা অবশ্যই বেশ কয়েকটি চীনা সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপ নিষিদ্ধ করার কথা ভাবছি। সেটা করাও হবে।’ 
চীনের সঙ্গে আমেরিকার বাণিজ্যযুদ্ধ চলছিলই। তার মধ্যে ঘি ঢেলেছে করোনা পরিস্থিতি। আমেরিকায় রোজ লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্ত। এজন্য বারবার চীনের দিকেই আঙুল তুলেছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এবার হংকংয়ে চীনের আগ্রাসন আরও চটিয়ে দিয়েছে আমেরিকাকে। তাই ভারতের মতো চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করতে উঠেপড়ে লেগেছে হোয়াইট হাউস। 
ভারত সরকার জানিয়েছিল, চিকটক সহ চীনা অ্যাপ দেশের নিরাপত্তা বিঘ্নিত করছে। ভারতীয়দের গোপন তথ্য বিভিন্ন দেশের কাছে তুলে ধরছে। এই অভিযোগ অনেক দিন ধরেই করছিলেন মার্কিন সেনেটর ও কংগ্রেস সদস্যরা। ওই সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপগুলিকে ‘চীনা কমিউনিস্ট পার্টির নজরদারির পদক্ষেপকে সমর্থন ও সহযোগিতা করতে’ বলা হয়েছে । তার পর থেকেই চিন্তা প্রকাশ করেন মার্কিন সেনেটররা। তাঁদের মতে, এতে আমেরিকা জাতীয় নিরাপত্তা বিঘ্নিত হবে। এবার তাই চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করার পথেই এগোচ্ছে দেশ। 

জনপ্রিয়

Back To Top