আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ বাংলাদেশে করোনার প্রভাব পড়লেও তা রুখে দেওয়া গিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে বিশেষ বিমানে আমেরিকায় উড়ে গেলেন ২৬৯ মার্কিন নাগরিক। যদিও আমেরিকায় করোনার প্রকোপ ভয়াবহ। কারণ আমেরিকা জুড়ে দেড় লক্ষেরও বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত। কাতার এয়ারওয়েজের একটি বিশেষ বিমানে রাজধানী ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে তাঁরা নিজেদের দেশে রওনা হন। বিমানটি ওয়াশিংটনে যাবে বলে খবর।
জানা গিয়েছে, ঢাকার মার্কিন দূতাবাসের তৎপরতায় বাংলাদেশে আটকে থাকা ওই ২৬৯ জন মার্কিনিকে দেশে ফেরানোর ব্যবস্থা করা হয়। ঢাকায় বিদেশি মিশনে কর্মরত কূটনীতিক, কর্মী, দূতাবাসের কর্তা এবং তাঁদের পরিবারের সদস্যরাই দেশে ফিরে গিয়েছেন। করোনার আতঙ্ক তাঁদের মধ্যে থাকলেও দেশে ফেরার তাগিদ ছিল। তাই তড়িঘড়ি এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।
বিশ্বজুড়ে করোনার জেরে বাংলাদেশে আন্তর্জাতিক উড়ান বন্ধ। ইউরোপে করোনাভাইরাসের প্রকোপ বাড়ার পরই ১৪ মার্চ থেকে ব্রিটেন বাদে ইউরোপের সব দেশ থেকে আসা বিমান অবতরণ বন্ধ ঘোষণা করে বাংলাদেশ সরকার। ২১ মার্চ মধ্যরাত থেকে আন্তর্জাতিক উড়ানের ক্ষেত্রে আরও বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়। সমস্যায় পড়েন বিদেশি নাগরিকরা। বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রকের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বিদেশি নাগরিকেরা দেশে ফিরে যেতে চাইলে তাঁদের জন্য চার্টার বিমান ব্যবহারে অনুমতি দেওয়া হবে।

জনপ্রিয়

Back To Top