আজকাল ওয়েবডেস্ক: শীতকালীন সর্দি–জ্বর এবং করোনাভাইরাসের পার্থক্য বুঝতে এবার দুটি সম্পূর্ণ নতুন কোভিড–১৯ পরীক্ষা আনছে ইংল্যান্ড। খুব শিগগিরি এই দুটি নতুন পরীক্ষা ইংল্যান্ডের সব হাসপাতাল, স্বাস্থ্য কেন্দ্র এবং গবেষণাগারে শুরু হয়ে যাবে। সোমবার একথা জানিয়েছে ব্রিটিশ সরকার।
এই দুটির মধ্যে প্রথম ৯০ মিনিটের পরীক্ষাটি হল ল্যামপোর সোয়্যাব পরীক্ষা। এই পরীক্ষার সোয়্যাব অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে গঠিত সংস্থা অস্কফোর্ড ন্যানোপোর সরবরাহ করবে। সংস্থাটি আগামী সপ্তাহ থেকেই ব্রিটেনের গবেষণাগারগুলিতে ৯০ মিনিটের পরীক্ষার জন্য ৪,৫০,০০০টি সোয়্যাব তৈরি করবে। এই পরীক্ষাগুলি সোয়্যাব এবং স্যালাইভা নিয়ে হবে যা ৬০–৯০ মিনিটের মধ্যে ফল জানাতে পারবে। সংস্থার সিইও, ভারতীয় বংশোদ্ভূত গর্ডন সাংঘেরা বললেন, ‘‌ইংল্যান্ডের কোভিড লড়াইয়ের একটা অংশ হতে পেরে আমরা গর্বিত। ল্যামপোরের উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন পরীক্ষার ফল নির্ধারণের ক্ষমতা আছে। যা সারা বিশ্বে শুধু কোভিডের জন্যই নয়, অন্য প্যাথোজেনেও কাজ দেবে।’‌ 
দ্বিতীয় নতুন র‌্যাপিড কোভিড পরীক্ষায় ভাইরাস চিনতে ডিএনএ পরীক্ষা করা হবে। আগামী সেপ্টেম্বর থেকে এনএইচএস হাসপাতালগুলিতে ৫০০০ ডিএনএ মেশিন সরবরাহ করবে ডিএনএনাজ কোম্পানি। এই মেশিনের মাধ্যমে আগামী মাসগুলিতে ৫৮ লক্ষ পরীক্ষা সম্ভবপর হবে। এই ডিএনএ ‘‌নাজবক্স’‌ মেশিনের মাধ্যমে নাকের সোয়্যাব নিয়ে ৯০ মিনিটের মধ্যে কোভিড পরীক্ষা সম্ভব। কোনও গবেষণাগারে সোয়্যাব না পাঠিয়েই দিনে ১৫টি পরীক্ষা করতে পারবে এই মেশিন। যদি রিপোর্ট পজিটিভ আসে তাহলে তার রিপোর্ট ‘‌এনএইচএস টেস্ট অ্যান্ড ট্রেস’–এ জানিয়ে দেওয়া হবে।‌
ইংল্যান্ডের স্বাস্থ্য এবং সামাজিক সুরক্ষা দপ্তর বলেছে, নতুন এই পরীক্ষায় পিসিআর সোয়্যাব পরীক্ষার মতোই ফল মিলছে। আগামী দিনগুলিতে করোনাভাইরাস পরীক্ষা এবং মোকাবিলায় এই নতুন দুটি পরীক্ষা অত্যন্ত কার্যকর এবং আবশ্যিক হয়ে উঠতে পারে বলেই ধারণা তাদের।

জনপ্রিয়

Back To Top