আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ গ্রাহক বলেছিলেন ২৯০ ডলার মূল্যের ওয়াইন দিতে। কিন্তু বারের কর্মী তাঁকে দিলেন ৫০০০ ডলারেরও বেশি দামী ওয়াইন। বুঝতে না পেরে সেই ওয়াইন গলাধঃকরণ করেন গ্রাহকও। এদিকে, যতক্ষণে ভুল বুঝতে পেরেছেন ওই কর্মী, ততক্ষণে অনেকটাই দেরি হয়ে গিয়েছে। ফলে গ্রাহক কেবল ২৯০ ডলার দিয়েই চলে গিয়েছেন। আসলে দু’‌টি বোতল দেখতে হুবহু একরকম। কিন্তু কম দামী ওয়াইন দেওয়ার বদলে ‘‌চিতাউ লে পিন পোমেরল ২০০১’‌ নামে ওই দামী ওয়ানটিই গ্রাহককে দিয়ে দেন ওই কর্মী। এরপর?‌ অন্য কোথাও হলে হয়ত তখনই চাকরি যেত ওই কর্মীর। ‌কিন্তু না, ম্যাঞ্চেস্টারের হকসমুর ম্যাঞ্চেস্টার স্টিকহাউস এবং ককটেল বার সেরকম কিছুই করেনি। উল্টে গোটা ঘটনাটি টুইট করে জানিয়ে ওই কর্মীর পাশেই দাঁড়িয়েছে তাঁরা। পোস্টে বার কর্তৃপক্ষ লেখে, ‘‌এই পোস্টটি আমাদের ওই গ্রাহকের উদ্দেশে, যাঁকে আমরা ভুলবশত ‘‌চিতাউ লে পিন পোমেরল ২০০১’‌ নামে ওয়ানটি দিয়ে ফেলেছি। যার দাম কিনা ৪৫০০ পাউন্ড। আশা করি, আপনি ভালভাবে সেটি উপভোগ করেছেন। আর আমাদের যে কর্মী ভুলবশত কাজটি করেছে, তাঁকে বলতে চাই– মন খারাপ কর না। এরকম একটা–দুটো ভুল হতে পারে। আমরা তোমাকে তবুও ভালবাসি।’‌   ইতিমধ্যে এই পোস্টটি সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরালও হয়েছে।‌ অনেকেই আবার হতাশা প্রকাশ করে লিখেছেন, ‘‌সত্যি সব সংস্থাই যদি এভাবে তাঁদের কর্মীদের পাশে থাকত!‌’‌

জনপ্রিয়

Back To Top