আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ বাসে, ট্রামে, কিংবা ট্রেনে যাতায়াত করুন সম্পূর্ণ বিনামূল্যে। অবাক হচ্ছেন?‌ সত্যিই এ সুযোগ থাকছে সমস্ত নাগরিকদের জন্য। এমনকি আপনি পর্যটক হলেও সে সুযোগ পাবেন সহজেই। এবার নিশ্চয় জানতে ইচ্ছে করছে কোথায় এই মজার মুলুক?‌ একটু দূরে অবশ্য। লুক্সেমবুর্গ। ইউরোপের সপ্তম ছোট দেশ এটি। তবে বেশ ধনী এই জায়গায় এই ব্যবস্থা করা হয়েছে কেন জানেন?‌ যাতে ধনী এবং দরিদ্রদের মধ্যে সামঞ্জস্য রাখা যায়। 
ইতিমধ্যেই আমাদের রাজধানী দিল্লিতে মহিলাদের জন্য আপ সরকার এই সুবিধা করেছে, সরকারি বাসে। তবে মহিলা, পুরুষ নির্বিশেষে সবাইকেই আগামী ১ লা মার্চ থেকে লুক্সেমবার্গে ট্রেন, ট্রাম, বাসের মতো গণপরিবহনে যাতায়াতের ক্ষেত্রে কোনও টাকা পয়সাই খরচ করতে হবে না। ২০১৮–র শেষে হিজাব পরিহিত এক মহিলা একটি টিকটক ভিডিও বানিয়েছিলেন, যা খুব ভাইরালও হয়েছিল। সেই মহিলা খুব খুশি হয়েছিলেন তাঁদের নতুন প্রধানমন্ত্রীর জন্য। সে সময়ে সে দেশের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছিলেন জেভিয়ার ব্যাটল। তিনি তাঁর নির্বাচনী প্রচারের সময়েই ঘোষণা করেছিলেন, তিনি জিতলেই বিনামূল্যে এই যাতায়াতের ব্যবস্থা করে দেবেন। সেই সিদ্ধান্তই এবার বাস্তবায়িত হচ্ছে সাধারণের জন্য। 
সমীক্ষা বলছে, এই সিদ্ধান্তের ফলে প্রায় ছ’‌ লাখ মানুষ লাভবান হতে চলেছেন। বার্ষিক হিসেবে দেখা যাচ্ছে , সেখানে প্রায় এক লাখ ৭৫ হাজার শ্রমিক কাজ করেন। এক কোটি দু’‌ লাখ মানুষ বেড়াতে আসেন। এখানে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সমস্ত দেশের তুলনায় মাথাপিছু গাড়ির সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। এই দেশে ৬০ শতাংশেরও বেশি লোক অফিসে যেতে তাঁদের নিজস্ব গাড়ি ব্যবহার করেন। মাত্র ১৯ শতাংশ মানুষ সাধারণ যানবাহনের ব্যবহার করেন। তাই সকলের কথা ভেবেই এই সিদ্ধান্ত। 
যদিও এখনই লুক্সেমবুর্গের সাধারণ মানুষজন যানবাহনের উপর প্রচুর ভর্তুকি উপভোগ করছেন। এখানে দু’‌ ঘণ্টা কেউ যাতায়াত করলে তাঁকে টাকার হিসেবে ৩০০ টাকা খরচ করতে হয়। আর ২০ বছর পর্যন্ত সব শিক্ষার্থীদের জন্য সরকার এখানে নিখরচায় পরিবহণের সুবিধা দেয়। কাজেই ভিসা পাসপোর্ট তৈরি থাকলে, আর এই নিখরচার যাতায়াতের আনন্দ পেতে চাইলে অবশ্যই একবার ঘুরে আসতেই পারেন লুক্সেমবুর্গে। তবে হ্যাঁ, মার্চের পরে। ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top