আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ দেশের বর্তমান পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে দিল্লির নির্বাচন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ছিল। সেই নির্বাচনে ফের বাজিমাত করলেন কেজরিওয়াল। শুরু থেকেই দিল্লির নির্বাচনে লড়াই মূলত ছিল আপ বনাম বিজেপির মধ্যে। কংগ্রেস দুই দলের ধারে কাছেও ছিল না। সেই জায়গায় কেজরিওয়াল লড়াইয়ে নেমেছিলেন মূলত উন্নয়নকে সামনে রেখে। আর বিজেপি লড়াইয়ে নেমেছিল কট্টর জাতীয়তাবাদী হিন্দুত্বের ইস্যুকে সামনে রেখে। শেষ পর্যন্ত রাজধানীর মানুষ উন্নয়নের কাণ্ডারি কেজরিওয়ালকেই বেছে নিলেন। দিল্লির নির্বাচন নিয়ে দেশের সংবাদমাধ্যমগুলি উদগ্রীব হয়েছিল, তেমনই কড়া নজর রেখেছিল বিদেশি সংবাদমাধ্যমগুলি। নির্বাচনের ফলাফল ঘোষিত হওয়ার পর আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলি মোদি সরকার এবং তাঁর দল বিজেপির ‘‌বিষাক্ত’ প্রচারের দিকে আঙুল তুলেছে। কী বলছে বিদেশি সংবাদমাধ্যমগুলি, দেখে নেওয়া যাক.‌.‌.‌
নিউইয়র্ক টাইমস ‘ইন বিটার দিল্লি ইলেকশনে’ লিখেছে, মোদির দল চরম বিপর্যয়ের মুখে পড়েছে৷ নরেন্দ্র মোদি জাতীয় ইস্যু নিয়ে প্রচারে ঝড় তুলেছিলেন৷ এক মন্ত্রী তো আবার ষড়যন্ত্রকারীদের গুলি কে মেরে ফেলারও পরামর্শ দেন৷ নিউ ইয়র্ক টাইমসের বক্তব্য, এই নির্বাচনে কেজরিওয়ালে বিজেপির পথ অনুসরণ করে নরম হিন্দুত্বের প্রচার চালিয়েছে। আর সেই কারণেই তারা বাজিমাত করতে পেরেছে। 
ওয়াশিংটন পোস্ট লিখেছে, দিল্লি নির্বাচনে মূলত উন্নয়নকে হাতিয়ার করে লড়াই করেছে আম আদমি পার্টির নেতা কেজরিওয়াল। সেই ইস্যুতে কেজরিকে টেক্কা দেওয়ার ক্ষমতাই ছিল না বিজেপির মধ্যে। এটা নির্বাচনে বড় ধাক্কা খেলেন মোদি।
আল জাজিরা লিখেছে, দিল্লির নির্বাচনে উন্নয়নের জয় হল।

জনপ্রিয়

Back To Top