সংবাদ সংস্থা
দিল্লি, ২৮ অক্টোবর

২০২০ সালেই, মানে আর দু’‌মাসের মধ্যেই কোভিডের টিকা বাজারে এনে ফেলতে পারবে তারা। মঙ্গলবার  আশা–‌জাগানো খবর দিয়েছে মার্কিন ওষুধ প্রস্তুতকারী সংস্থা ফাইজার। সংস্থার চিফ এগ্‌জিকিউটিভ অ্যালবার্ট বোরলা বলেন, যদি প্রত্যাশামতো ক্লিনিক্যাল পরীক্ষার কাজ এগোয় এবং রেগুলেটরি সংস্থা অনুমতি দেয়, তা হলে ২০২০ সালেই আমেরিকায় ৪ কোটি ডোজ টিকা সরবরাহ করা সম্ভব হবে। তবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে রাজনৈতিক বিতর্ক এড়াতে ফাইজার কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, টিকা–‌সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে বাজারে আনা হবে না।
ফাইজার–‌এর সঙ্গে মার্কিন সরকারের চুক্তি অনুযায়ী, এ বছরের শেষে তারা ৪ কোটি ডোজ এবং ২০২১–‌এর মার্চের মধ্যে ১০ কোটি ডোজ টিকা সরবরাহ করবে। অ্যালবার্ট বোরলার দাবি, ‘আমরা শেষ ল্যাপে পৌঁছে গেছি। কোভিড ১৯–এর টিকার জরুরিকালীন ব্যবহারের অনুমতি পেতে নভেম্বরের তৃতীয় সপ্তাহেই আর্জি জানানো হবে।’ এর আগে ফাইজার জানিয়েছিল, অক্টোবরেই টিকার সব তথ্য তাদের হাতে চলে আসবে এবং এর ফলে ৩ নভেম্বরের আগেই টিকা এনে ফেলা সম্ভব হতে পারে। উল্লেখ্য, ৪ নভেম্বর মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ফল বেরোনোর নির্দিষ্ট দিন।
এদিকে স্পুটনিক ‌ভি টিকা বিশ্বের অন্যত্র জরুরিকালীন ব্যবহারের অনুমতি পেতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (‌হু)‌ কাছে আবেদন জানিয়েছে রাশিয়ান ডিরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড। এই সংস্থার আর্থিক সহায়তায় তৈরি হয়েছে স্পুটনিক ভি। কোনও নতুন টিকা জরুরি ভিত্তিতে ব্যবহার করতে হলে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার জরুরি ব্যবহারের তালিকাভুক্ত হতে হয়। আবার ছাড়পত্রের অপেক্ষায় থাকা ওষুধগুলির যে নিজস্ব তালিকা রাষ্ট্রপুঞ্জের আছে, সেখানে উল্লেখ থাকলেও কোনও টিকার গুণমান সম্পর্কে সরাসরি শংসাপত্র দেয় হু। দুটি ক্ষেত্রেই স্পুটনিক ভি–এর জন্য আবেদন করেছে আরডিআইএফ। পরীক্ষা–‌পর্ব শেষে আবেদন গৃহীত হলে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার স্বীকৃতি পাবে স্পুটনিক ভি।

জনপ্রিয়

Back To Top