আজকাল ওয়েবডেস্ক: সৌদি আরবে নারী স্বাধীনতার পথে আরও এক উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপ। প্রথমবার মহিলা সাইক্লিং প্রতিযোগিতা আয়োজিত হল রক্ষণশীল এই দেশে। জেড্ডা শহরে ১০ কিলোমিটার সাইকেল রেসে অংশ নিয়েছিলেন ৪৭জন মহিলা। এই প্রতিযোগিতা আয়োজন করার পরে অবশ্য প্রশংসার পাশাপাশি তুমুল সমালোচনাও হজম করতে হচ্ছে আয়োজক ‌‘‌বিঅ্যাকটিভ’‌–কে। এক সমালোচকের টুইট, ‘‌আমি ধর্মগুরু নই। কিন্তু একজন নারীর শরীরের আকষর্ণীয় অংশগুলো পুরুষদের দেখিয়ে সাইকেল চালানো ঠিক হয়নি।’‌ আর এক সমালোচকের টুইট, ‘‌নারীদের খেলাধুলো করা প্রয়োজন। কিন্তু সেটা পুরুষদের সামনে করা ঠিক নয়।’‌ বিঅ্যাকটিভের সঙ্গে এই প্রতিযোগিতা আয়োজনে সক্রিয় সহযোগিতা করেছিল স্থানীয় প্রশাসন। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের মতে, কট্টরপন্থীদের আপত্তি থাকার পরেও এতজন মহিলা এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করায় অনেকেই বিস্মিত। শুধু তাই নয়, মহিলারা যাতে নিয়মিত সাইক্লিং অনুশীলন করতে পারেন, সেজন্য একটি সাইক্লিং ক্লাবও গঠন করা হচ্ছে। এবং মহিলাদের মধ্যে খেলাধুলোর প্রচলন করতে সচেতনতা বাড়ানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। তবে পরিস্থিতি যে পুরোপুরি মহিলাদের অনুকূলে, এখনই এমনটা বলা যাবে না। কারণ এই ক্লাবে যে মহিলা সাইক্লিস্টরা আসেন, তাঁদের সঙ্গে থাকেন পুরুষ অভিভাবকরা। কী ধরনের পোশাক পরে মহিলারা সাইক্লিং করবেন, সেটা নিয়েও সদস্যাদের মধ্যেই মতভেদ আছে। তবু এক সদস্যার কথায়, ‘‌একটা ক্লাব যে তৈরি হয়েছে, আমরা যে খেলাধুলো করতে পারছি, সেটাই বা কম কী?‌ স্থানীয় প্রশাসন সহায়তা না করলে এটুকুও হতো না।’‌ তবে উদ্যোক্তারা জানিয়েছেন, এমন প্রতিযোগিতা আবারও আয়োজন করা হবে।

জনপ্রিয়

Back To Top