‌আজকাল ওয়েবডেস্ক: মাথায় পাগড়ি, আর তা দেখেই এক শিখ ব্যক্তিকে মুসলিম ভেবে বসল লন্ডনের এক বাসিন্দা। হেনস্তার পাশাপাশি তাঁকে শুনতে হল ‘‌গো ব্যাক’‌ স্লোগানও। রভনীত সিং নামে ওই ভারতীয় ব্যক্তি ইকোশিখ সাউথ ইস্ট এশিয়ার প্রজেক্ট ম্যানেজার। ঘটনার দিন ব্রিটেনের শিখ এমপি তনমনজিৎ সিং ধেসির সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন তিনি। সঙ্গে ছিলেন তাঁর সহকর্মী জসপ্রীত সিং। লুধিয়ানার বাসিন্দা রভনীত যখন ব্রিটেনের পার্লামেন্টের সামনে অপেক্ষা করছিলেন, তখনই তাঁর উপর হামলা চালায় এক ব্যক্তি। খুলে নেওয়ার চেষ্টা করে পাগড়ি। ওই ব্যক্তি ভেবেছিলেন রভনীত আসলে মুসলিম। এরপর শুধু পাগড়ি খোলার চেষ্টা নয়, ওই ব্যক্তি রভনীতকে উদ্দেশ্য করে বলতে থাকেন, ‘‌মুসলিম গো ব্যাক’‌। বিষয়টি প্রকাশ্যে আসতেই শুরু হয় বিতর্ক। শিখ এমপি তনমনজিৎ ফেসবুকে এই ঘটনার তীব্র নিন্দাও করেন। পাশাপাশি ভবিষ্যতে যাতে এ ধরনের ঘটনা না ঘটে, তাও দেখার আশ্বাস দিয়েছেন। এই প্রথম নয়, ৯/‌১১–র হামলার পর থেকে আমেরিকা, ব্রিটেন এবং কানাডার মতো দেশগুলিতে হেনস্তার শিকার হয়েছেন বহু শিখ। বড় দাঁড়ি এবং পাগড়ির জন্য মুসলিম ভেবে তাঁদের হেনস্তা করা হয়েছে। যার শেষ প্রমাণ রভনীত সিং।  ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top