আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ‌হার্ড ইমিউনিটি তৈরি হলেই করোনাভাইরাসও মরশুমি রোগে পরিণত হবে নাতিশীতোষ্ণ অঞ্চলে। কিন্তু যত দিন না অধিকাংশ মানুষের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি হচ্ছে, ততদিন প্রায় সব ঋতুতেই এই ভাইরাসের প্রকোপ থাকবে, বলছে নতুন গবেষণা। ফন্টিয়ার্স ইন পাবলিক হেল্থ নামে প্রকাশিত ওই গবেষণার রিপোর্ট বলছে, একটা বড় অংশের মানুষের মানুষ যখন এই ভাইরাসের বিরুদ্ধে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তুলতে সক্ষম হবে, তখন সংক্রমণ নিজে থেকেই কমবে। আর তার জেরে করোনাও নির্দিষ্ট মুরশুমে দেখা দেবে। লেবাননে আমেরিকান ইউনিভার্সিটি অফ বেইরুটের গবেষক হাসান জারাকেট বলেন, ‘‌হার্ড ইমিউনিটি তৈরি হওয়া পর্যন্ত করোনা থাকবে এবং ছড়াবে। এটা মেনে নিয়েই বাঁচতে হবে। সংক্রমণ এড়াতে মাস্ক পরতে হবে। শারীরিক দূরত্ব বিধি বজায় রাখতে হবে। পরিষ্কার–পরিচ্ছন্ন থাকা এবং ভিরভাট্টা এড়িয়ে চলতে হবে।’‌
গবেষকরা বলছেন, হার্ড ইমিউনিটি স্তরে পৌঁছনোর আগে সংক্রমণের অনেকগুলি ঢেউ আসতে পারে। আগের গবেষণার রিপোর্ট উল্লেখ করে তাঁরা বলেছেন, শ্বাসযন্ত্রে আক্রমণকারী সার্স কোভ–২–এর অন্যান্য ভাইরাসগুলির প্রকোপও নির্দিষ্ট ঋতুতেই দেখা যায় নাতিশীতোষ্ণ অঞ্চলে। যেমন শীতের সময়ে ইনফ্লুয়েঞ্জা বেশি ছড়ায় সেখানে। অন্যদিকে ক্রান্তীয় অঞ্চলে সারাবছরই অল্প–বিস্তর সক্রিয় থাকে ওই ভাইরাস। বেশ কিছু মরশুমি ভাইরাসের চরিত্র নিয়ে গবেষণা করে দেখা হয়। তাপমাত্রা এবং আদ্রতার সঙ্গে সম্পর্ক কেমন, তা নিয়ে আরও বিস্তর গবেষণা চলছে। 

জনপ্রিয়

Back To Top