সুদীপ্তা চৌধুরী, লন্ডন (যুক্তরাজ্য) থেকেঃ সরস্বতী পূজা উপলক্ষে যুক্তরাজ্যের অন্যতম শীর্ষ শাস্ত্রীয় সংগীতের প্রতিষ্ঠান  সৌধ এবার দ্বিতীয়বারের মত আয়োজন করেছিল দি ফ্যাস্টিভাল অব জয় এন্ড হ্যাপিনেস। গত ২৭ জানুয়ারি  সাউথ লন্ডনের উইম্বলডন লাইব্রেরির মার্টন আর্টস্পেসে আয়োজিত এই আনন্দ উৎসবে বিভিন্ন বর্ণ, গোত্র ও সংস্কৃতির  দর্শকেরা ছাড়াও  উইম্বলডনের সাংসদ স্টিফেন হামন্দ ও স্থানীয় কাউন্সিলরৃন্দ যোগ দিয়েছিলেন।  বিভিন্ন পরিবেশনায় অংশ নিয়েছিলেন প্রখ্যাত রবীন্দ্রশিল্পী ডঃ ইমতিয়াজ আহমেদ,  কী-বোর্ড শিল্পী ও কম্পোজার সুনীল যাদব, জ্যাজ মিউজিক গ্রুপ ইয়াত্রা কোয়ার্টেটের  সলো -ভায়োলিন-বাদক এলিস বারন, কবি লেসলী লিসমূর, কবি মার্সিয়া মার্টিনস ডা রসা, কবি ও চিত্রশিল্পী জুলিয়া ভিটিলো, কবি নির্বান আজিম, সঙ্গীতশিল্পী আমল পোদ্দার,অনুজা প্রধান, শতরূপা ঘোষ,   নৃত্যশিল্পী এশা চক্রবর্তী, আশাবরী রশিদ এবং শিশু শিল্পী তানিশা চৌধুরী ও আনভিতা গুপ্ত।

এতে দলীয় সঙ্গীত পরিবেশন করে আনন্দধারা আর্টসের শিল্পীরা। ভারতের বাইরে সর্বভারতীয় শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের অন্যতম প্রধান দূত, সঙ্গীত রিসার্চ একাডেমীর স্বর্ণযুগের অন্যতম স্কলার  শ্রীমতি চন্দ্রা চক্রবর্তীর তত্বাবধানে অনুষ্ঠিতব্য এই সরস্বতি পুজা ইতিমধ্যেই লন্ডনের মূলধারার দর্শক ও গণমাধ্যমের বিপুল মনযোগ আকর্ষণ করেছে! অপরাহ্ন সাড়ে চারটা থেকে শুরু হয়ে উৎসব চলে রাত সাড়ে দশটা অবধি। সকলের জন্য উন্মুক্ত  এই উৎসবের শেষে ছিল বিনামূল্যে নৈশভোজের ব্যবস্থা।  সৌধ পরিচালক টি এম আহমেদ কায়সার বলেন, এ বছর উৎসব নিয়ে লন্ডনের দর্শকদের মাঝে  আশাতীত সাড়া আমরা লক্ষ্য করছি।  পাশাপাশি ক্রয়ডন, টুটিং, কিংস্টনে এত এত পূজা হবার পরও শিল্প -সঙ্গীত নিয়ে   সৌধের  একটা ব্র্যান্ড ইমেজের কারণেই বোধকরি  দর্শকেরা এই অনুষ্ঠানকেই বেছে নিয়েছেন। সৌধের অন্যান্য অনুষ্ঠানগুলিতে যেমন হয়, সর্ব-ভারতীয় দর্শকদের পাশাপাশি এতেও উপস্থিত থাকবেন  প্রচুর বিদেশি দর্শকও। 

জনপ্রিয়

Back To Top