Nobel Prize: নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য মনোনীত বাংলাদেশি চিকিৎসক

আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ চলতি বছর নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছেন বাংলাদেশি চিকিৎসক রায়ান সাদী।

তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজের (ঢামেক) কে–৪০ ব্যাচের শিক্ষার্থী ছিলেন। বর্তমানে তিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে টেভোগেন বায়োর চেয়ারম্যান ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা। রায়ান সাদী সোশ্যাল মিডিয়ায় নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য মনোনীত হওয়ার কথা জানিয়েছেন। বাংলাদেশের শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনিও তাঁর ফেসবুক পেজে নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য রায়ান সাদীর মনোনীত হওয়ার তথ্য জানিয়ে পোস্ট করেন। দীপু মনি লিখেছেন, ‘আমাদের ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের কে–৪০ ব্যাচের বন্ধু রায়ান সাদী এমডি, এমপিএইচ, চেয়ারম্যান ও সিইও, টেভোগেন বায়ো, এ বছরের নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছেন। আমরা গর্বিত। সাদীর প্রতি প্রাণঢালা অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা। সাদী ও তার পরিবারের প্রতি নিরন্তর শুভকামনা।’ 

রায়ান সাদীর জন্ম ১৯৬৪ সালের ৬ ডিসেম্বর পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার সাহাপুরে। তৈয়ব হোসেন ও আসমা বেগম দম্পতির বড় সন্তান তিনি। তার সহধর্মিণী ডা. জুডি আক্তার এবং একমাত্র কন্যা এমিলি। রায়ান সাদী কুষ্টিয়া জেলা স্কুলে পড়াশোনা করেছেন। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ থেকে তিনি এমবিবিএস শেষে যুক্তরাষ্ট্রের হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে চিকিৎসাবিজ্ঞানে লিডারশিপ, ইয়েল ইউনিভার্সিটিতে হেলথ পলিসি এবং অর্থনীতিতে উচ্চতর ডিগ্রি গ্রহণ করেন। 
রায়ান সাদী ১৯৯৫ থেকে ১৯৯৭ সাল পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের নেভাডায় চার্চিল কমিউনিটি হাসপাতালে এপিডেমিওলোজি বিভাগে পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। ১৯৯৮ থেকে ২০০০ সাল পর্যন্ত তিনি সিভিএস হেলথ কোম্পানি ইটনার মানোন্নয়ন বিভাগের পরিচালক ছিলেন। ২০০১ থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত তিনি কাজ করেছেন সানোফি জেনজিমে। এরপর ১০ বছর তিনি কাজ করেছেন জনসন অ্যান্ড জনসনে। ২০১২ সালের আগস্ট থেকে ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত তিনি সেখানে ক্যান্সার বিষয়ে মার্কেট অ্যাকসেস অ্যান্ড পলিসি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ছিলেন। ২০১০, ২০১৩ ও ২০১৭– তিনবার সাদী যুক্তরাষ্ট্র সরকারের বিশেষ কর্মী হিসেবে নিয়োগ পান।

আরও পড়ুন:‌ শাহি সফরের আগের দিন পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলা, শহিদ পুলিশকর্মী 

আকর্ষণীয় খবর