আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পর এবার রাশিয়া। বন্দুকবাজের হামলায় মারা গেলেন শিক্ষক সহ আটজন পড়ুয়া। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার রাজধানী মস্কো থেকে ৮২০ কিলোমিটার দূরে কাজানের অন্তর্গত তাতারস্তানে। এই অঞ্চলটি মুসলিম অধ্যুষিত। গুলি চালানোর ঘটনায় ইতিমধ্যেই এক তরুণকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গোটা ঘটনাটি দুঃখজনক বলে জানিয়েছেন তাতারস্তানের প্রেসিডেন্ট রুস্তম মিনিখানভ। ঘটনার কথা জানার পর রাশিয়ান প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুটিন জানিয়েছেন, তিনি রাশিয়ার বন্দুক নিয়ন্ত্রক আইন নিয়ে পর্যালোচনা করবেন। 
অতীতে ২০১৮ সালেও রাশিয়ায় স্কুলে হামলা চালিয়েছিল বন্দুকবাজ। ঘটনাটি ঘটে শহরের ১৭৫ নম্বর স্কুলে। সোশ্যাল মিডিয়ায় একাধিক ফুটেজে দেখা গেছে, গুলি চলতেই পড়ুয়ারা জানলা থেকে পালানোর চেষ্টা করছে। কেউ দেওয়াল টপকে প্রাণভয়ে দৌড়চ্ছে। সূত্রের খবর, দু’‌জন ছাত্র তিনতলার জানলা থেকে পরে মারা যায়। ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী এক পড়ুয়ার কথায়, ‘‌গুলি চলতেই প্রত্যেকে ভয় পেয়ে যায়। স্কুল ঘরের দরজা বন্ধ করে দিতে বলে। ঠিক একমিনিট পর শিক্ষকও চিৎকার জুড়ে দেন, ‘‌দরজা বন্ধ করো।’‌ প্রায় ১৫ মিনিট পর আমরা ঘর থেকে বেরোই। শিক্ষক আমাদের জানলা থেকে লাফ দিতে বারণ করেছিলেন।’ 
সূত্রের খবর দু’‌জন বন্দুকবাজ এই ঘটনা ঘটিয়েছে। তার মধ্যে একজন পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে মারা যায়। তবে অপর একটি সূত্র বলছে, বন্দুকবাজ ছিল একজন। 
জানা গেছে মৃতদের মধ্যে চারজন ছাত্র ও তিনজন ছাত্রী রয়েছে। আর একজন শিক্ষক। পড়ুয়া সহ আরও ১৬ জন হাসপাতালে ভর্তি। তার মধ্যে ৬ জনের অবস্থা গুরুতর। বন্দুকবাজকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সে স্থানীয় বাসিন্দা। বয়স মাত্র ১৯। বন্দুকের লাইসেন্স রয়েছে তার। কেন সে একাজ করল তা জানার চেষ্টা চলছে। 

জনপ্রিয়

Back To Top