Exoplanet: আলুর আকারের গ্রহ আবিষ্কার করলেন বিজ্ঞানীরা, সৌরজগত থেকে ১৮০০ আলোকবর্ষ দূরে  

আজকাল ওয়েবডেস্ক: মহাশূন্যে যেসব গ্রহ নক্ষত্রেরা ঝুলে আছে তাদের সবাই মোটেই গোলাকার নয়।

দূর থেকে গোল মনে হলেও কাছে গেলে অন্য যে কোনও আকারের হতে পারে। মহাকাশ বিজ্ঞানীরা বছর কয়েক আগে একটি এক্সোপ্ল্যানেট আবিষ্কার করেছিলেন। এক্সোপ্ল্যানেট শব্দের অর্থ অন্য সৌরজগতের গ্রহ। WASP-103b নামের ওই গ্রহটি আমাদের সৌরজগত থেকে ১৮০০ আলোকবর্ষ দূরে। এবার জানা গেল, গ্রহটির আকার একেবারে আলুর মতো।

আরও পড়ুন: সেজে উঠছে জেমস ওয়েব স্পেস টেলিস্কোপ, ১৮টি টুকরো জুড়ে তৈরি হচ্ছে দৈত্যাকার 'সোনার' আয়না​ 


WASP-103b-এর অবস্থান ‘হারকিউলিস’ নক্ষত্রপুঞ্জে। WASP-103 নামক ‘সূর্য’কে প্রদক্ষিণ করছে গ্রহটি। আমাদের সূর্য থেকে আমাদের পৃথিবীর যতটা দূরত্ব তার ৫০ গুণ কম ওই দু’জনের। আমাদের পৃথিবীর যেখানে গোটা কক্ষপথ প্রদক্ষিণ করতে ৩৬৫ দিন সময় লাগে, আলুর আকারের গ্রহটি সেখানে প্রদক্ষিণ করে মাত্র ২২ ঘণ্টায়। নিজের সূর্যের এত কাছে থাকায় স্বভাবতই অত্যন্ত গরম গ্রহটি। চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য অবশ্য আমাদের বৃহস্পতির মতো। পর্তুগালের পোর্তো বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাস্ট্রোফিজিসিস্ট সুসানা বারোস বলছেন, এই এক্সোপ্ল্যানেট যদি বৃহস্পতির চেয়ে দেড় গুণ বড় হয়, তবে এর ব্যাসার্ধ হবে দ্বিগুণ। 
এই কারণেই এর চেহারা আলুর মতো। বিজ্ঞানীরা এও জানিয়েছেন, WASP-103b-এর অভ্যন্তরভাগ কঠিন এবং নিরেট। তার ওপর রয়েছে তরল আচ্ছাদন এবং তারও ওপরে গ্যাসীয় বায়ুমণ্ডল। বৃহস্পতিরও ঠিক একই রকম। বিজ্ঞানীদের আশা, নতুন লঞ্চ করা জেমস ওয়েব স্পেস টেলিস্কোপের সাহায্যে এই এক্সোপ্ল্যানেট সম্পর্কে অনেক কিছু জানা যাবে।            
 

আকর্ষণীয় খবর