দেশের প্রধানমন্ত্রী, সাংবাদিকদের কৃতজ্ঞতা জানালেন পরীমণি, গ্রেফতার অভিযুক্তসহ ৫ জন

আজকাল ওয়েবডেস্ক: বাংলাদেশের বিখ্যাত অভিনেত্রী পরীমণির এক ফেসবুক পোস্ট কয়েক ঘণ্টার মধ্যে গোটা বাংলাদেশে ঝড় তুলে দিয়েছে। তাঁকে ধর্ষণ এবং খুনের চেষ্টা করা হয়েছে বলেই অভিযোগ করেছিলেন অভিনেত্রী। পুলিশের দারস্থ হওয়ার পরেও বিচার না পাওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে খোলা চিঠি লেখেন তিনি। সাংবাদিক বৈঠক করেও সত্যিটা জানান সকলকে। এই বৈঠকের পরেই নড়েচড়ে বসে পুলিশ প্রশাসন। রাতারাতি তাঁর দাবি মেনেই গ্রেফতার করা হল প্রধান অভিযুক্ত সহ আরও ৫ জনকে। পরীমণির দাবি, এনারা প্রত্যেকেই সেই রাতে নারকীয় অত্যাচার করেছেন। জরুরি মিটিংয়ের কারণে ঢাকার এক ক্লাবে গিয়েছিলেন তিনি। সেই অভিযুক্ত জোর করে একটি পানীয়র গ্লাস পরীমণির মুখে চেপে দেন। অভিনেত্রীর দাবি, সেই পানীয়তে কিছু মেশানো ছিল। যা খাওয়ার পরেই শারীরিক অস্বস্তি শুরু হয় তাঁর। এরপর তাঁর শ্লীলতাহানির চেষ্টা করেন সেই ব্যক্তি। সংবাদ কর্মীদের সামনে সমস্ত ঘটনার বিবরণ দিতে দিতে কেঁদে ফেলেন অভিনেত্রী। শেষ পর্যন্ত অভিযুক্তরা শাস্তি পাওয়ায় ফেসবুকে পোস্ট করে পরীমণি লিখেছেন, 'আমার বিশ্বাস, আমার আস্থা ভুল ছিল না। আইন সবার ওপরে। শুধু সেই সঠিক জায়গায় পৌঁছনোটাই যত কষ্ট! আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, সকল সাংবাদিক, সকল সহকর্মী এবং দেশের মানুষ যারা আমার এই দুঃসময়ে পাশে ছিলেন, আছেন আমি সবার প্রতি আজীবন কৃতজ্ঞ। আপনারাই আমার সাহস। আসামীদের গ্রেফতার করা হয়েছে। এখন আমার চাওয়া আসামীরা যেন দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি পায়। কোনও ভাবেই যেন এই ধরনের লোকেরা আর কোন মেয়েকে এভাবে নির্যাতন-অপমান করার সাহস না পায়। আমি হার মানব না। আমি এই অন্যায়ের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাব। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনি এই দেশের আশীর্বাদ। আপনি মা। আপনি মমতার আঁচলে জড়িয়ে রাখেন আপনার সব সন্তানকে।'