আজকাল ওয়েবডেস্ক: ভারতের পদক্ষেপের বদলা নিতে মরিয়া হয়ে উঠল পাকিস্তান। তাই ভারতীয় নাগরিকদের ‌সন্ত্রাসবাদী তকমা দিতে চায় তাঁরা। কারণ পাকিস্তানের জৈশ–ই–মহম্মদ প্রধান মাসুদ আজহারকে রাষ্ট্রপুঞ্জের সন্ত্রাসবাদীর তালিকায় প্রবেশ করাতে সক্ষম হয়েছে ভারত। তাই বদলা নিতেই এখন চার ভারতীয় নাগরিককে রাষ্ট্রপুঞ্জে সন্ত্রাসবাদী হিসেবে চিহ্নিত করতে যায় পাকিস্তান। এই কাজে তারা পাশে পেয়েছে চীনকে। পাকিস্তান ও চীনের এই গোপন ষনযন্ত্রে বিরক্ত নয়াদিল্লি।
জানা গিয়েছে, পাকিস্তানের এই কারসাজি ধরে ফেলেছে ভারত। তাই উপযুক্ত পদক্ষেপ নিতে প্রস্তুত নয়াদিল্লি। পাকিস্তান যে চার ভারতীয়কে রাষ্ট্রপুঞ্জের সন্ত্রাসবাদী তালিকায় রাখার চেষ্টা করছে তা নিয়ে নিশ্চিত খবর পেয়েছে সাউথ ব্লক এবং জাতীয় নিরাপত্তা সংস্থা। এই চারজন হলেন– অন্ধ্রপ্রদেশের আপ্পাজি আংগারা, ওডিশার গোবিন্দ পট্টনায়েক দুগ্গিভালাসা, অজয় মিস্ত্রি এবং বেণুমাধব ডোংগারা। আফগানিস্তানে কর্মরত ছিলেন এই চারজনেই। আর তাঁদেরকেই টার্গেট করেছে ইসলামাবাদ।
পাকিস্তানের নিশানা থেকে সরাতেই চারজনকেই দেশে ফিরিয়ে আনতে সক্ষম হয়েছে ভারত। কাবুলের ব্যাঙ্কে সফটওয়্যার ডেভেলপার হিসেবে কাজ করতেন আপ্পাজি আংগারা। তাঁর বিরুদ্ধে ২০১৭ সালে লাহোরের মল রোডে সন্ত্রাসবাদী হামলার অভিযোগ এনেছে পাকিস্তান। গোবিন্দ পট্টনায়েকের বিরুদ্ধে পাক রাজনীতিক সিরাজ রাইসানির ওপর হামলার অভিযোগ নিয়ে আসা হয়েছে। সূত্রের খবর, আফিগানিস্তান থেকে দেশে না ফেরালে আইএসআই এদের অপহরণ করে পাকিস্তানে নিয়ে যেত বলে সন্দেহ ভারতের।

জনপ্রিয়

Back To Top