আজকাল ওয়েবডেস্ক: শ্রীলঙ্কা বিস্ফোরণ কাণ্ডে সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা গিয়েছে আত্মঘাতী বোমারু জঙ্গিকে। যে প্রথম বিস্ফোরণের আগে নেগোম্বোর সেন্ট সেবাস্টিয়ান গির্জায় প্রবেশ করেছিল। 
শ্রীলঙ্কার রাজধানী কলম্বো থেকে মাত্র ৪০ মিনিটের দুরত্বে অবস্থিত নেগোম্বোর এই গির্জাটি। এই গির্জা সহ আরও আটটি জায়গায় বিস্ফোরণ হয়। যার জেরে নিহত হন ৩০০–রও বেশিজন এবং আহত হয়েছেন বহু। সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা গিয়েছে, সন্দেহভাজন এক ব্যক্তি পিঠে ব্যাগপ্যাক নিয়ে ধীরগতিতে গির্জার দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। তার চারপাশে অন্য পথচারীরাও রয়েছে। ভিডিওতে দেখা গিয়েছে এক ব্যক্তি এবং একটি ছোট মেয়ে রাস্তা পার করার সময় আত্মঘাতী বোমারুর সামনে পড়ে যায়। সে ছোট মেয়েটির পিঠ চাপড়ে আবারও গির্জার দিকে হাঁটতে শুরু করে। সন্দেহভাজন ওই ব্যক্তির পরনে ছিল হাল্কা নীল রঙের টি–শার্ট এবং কালো প্যান্ট। সে সেন্ট সেবাস্টিয়ান গির্জার মূল ফটক দিয়ে ঢুকে যায়। দ্বিতীয়বার তাকে দেখা গিয়েছে গির্জার ভিড়ের মধ্যে। এই গির্জাতে ইস্টারের প্রার্থনা করতে এসেছিল বহু পুরুষ–মহিলা ও শিশু। তাঁদের মাঝখান দিয়েই সন্দেহজনক ব্যক্তি গির্জার তৃতীয় দরজার দিকে চলে যায়। ভিডিওর শেষে দেখা যায়, ওই ব্যক্তি নিজেকে গির্জার মধ্যে অন্যদের মাঝে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে। 
এক প্রত্যক্ষদর্শী দিলীপ ফার্নান্ডো জানান তিনি ওই সন্দেহজনক ব্যক্তিকে পিঠে ভারি ব্যাগ নিয়ে গির্জায় ঢুকতে দেখেছিলেন। তিনি বলেন, ‘‌সে যখন আমার পাশ দিয়ে যাচ্ছিল, তখন আমার নাতনির মাথায় হাত রাখে। সেই বোমারু জঙ্গি ছিল।’‌ তিনি আরও বলেন, ‘‌৩০ বছর বয়স হবে তার। খুব সরল ছিল মুখটা। তার মুখে কোনও উত্তেজনা বা ভয় ছিল না। খুব শান্ত ছিল মুখটা।’‌ শ্রীলঙ্কায় আটটি হামলার মধ্যে সেন্ট সেবাস্টিয়ান চার্চের বিস্ফোরণে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক মানুষ মারা গিয়েছে। স্থানীয় হাসপাতালে ১০০–রও বেশি দেহ এসেছে ওই গির্জা থেকে।  ‌

 


 

জনপ্রিয়

Back To Top