Omicron: টোঙ্গা দ্বীপেও ঢুকে পড়ল ওমিক্রন, নেপথ্যে কি বিদেশ থেকে আসা ত্রাণসামগ্রী!  

আজকাল ওয়েবডেস্ক: প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপ টোঙ্গাতেও ঢুকে পড়ল ওমিক্রন।

একদিনে সংক্রমণ হয়ে গেল দ্বিগুণ। এই দ্বীপের কাছেই সমুদ্রের মধ্যে থাকা আগ্নেয়গিরির অগ্নুৎপাত হয়েছিল কিছুদিন আগে। যার জেরে সুনামি পরিস্থিতি দেখা দিয়েছিল। আগ্নেয়গিরির বিস্ফোরণই পরোক্ষভাবে সংক্রমণের বাড়বাড়ন্ত এবং ওমিক্রনের আগমনের জন্য দায়ী বলে জানা গেছে। 

আরও পড়ুন: বাড়ছে উদ্বেগ, আমেরিকায় প্রথমবার ওমিক্রনে আক্রান্ত হরিণ, চিন্তিত বিশেষজ্ঞরা​ 


টোঙ্গায় একদিনে সংক্রমণ হয়েছে ৩১ জনের। মোট আক্রান্তের সংখ্যা এখন ৬৪, জানালেন ছোট্ট দ্বীপরাষ্ট্রের স্বাস্থ্যমন্ত্রী সালা পিউকালা। তিনি এও জানিয়েছেন, নমুনাগুলো পরীক্ষার জন্য অস্ট্রেলিয়ায় পাঠানো হয়েছিল। নতুন করে সংক্রমণের কারণ যে দ্রুত সংক্রামক ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট তা নিশ্চিত হয়েছে। কোন উৎস থেকে ওমিক্রনের আবির্ভাব তা এখন নিশ্চিত হয়নি। তবে মনে করা হচ্ছে, আগ্নেয়গিরির অগ্নুৎপাত এবং সুনামির পর বিদেশ থেকে যে ত্রাণসামগ্রী এসেছিল তা থেকেই ওমিক্রন ঢুকে পড়েছে টোঙ্গায়। অস্ট্রেলিয়া, চীন, ফ্রান্স, জাপান এবং নিউজিল্যান্ড থেকে এসেছিল ত্রাণ। 
এক লক্ষ জনবসতির দেশটায় এখন লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। সবাইকে ঘরে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। অর্থাৎ, স্কুল-কলেজ, অফিস-কাছারি সব বন্ধ। একমাত্র জরুরি পরিষেবার ক্ষেত্রগুলো খোলা। লকডাউনের ফলে ব্যাহত হচ্ছে ত্রাণের কাজ।
 

আকর্ষণীয় খবর