ইউহানের গবেষণাগারে জ্যান্ত বাদুড়!‌ একটি ভিডিওয় তোলপাড় গোটা বিশ্ব

আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ চীনের বিরুদ্ধে এবার উঠল মিথ্যাচারের অভিযোগ। তাও একটি ভিডিওর ভিত্তিতে। একটি ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা গেছে, ইউহানের গবেষণাগারে একঝাঁক জ্যান্ত বাদুড় খাঁচায় ভরে রাখা হয়েছে। তাদের শরীর থেকে নানা ভাইরাস নিয়ে পরীক্ষা নিরীক্ষা চালাচ্ছেন গবেষকরা। এর আগে কিন্তু বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছিল, ইউহানের গবেষণাগারে জ্যান্ত বাদুড় নিয়ে কোনও পরীক্ষা নিরীক্ষা হয়নি। তাতেই নতুন করে প্রশ্নের মুখে হু–র ভূমিকা। করোনা ভাইরাসের উৎস নিয়ে চীনকে আড়াল করার অভিযোগ তো আগেই উঠেছে চীনের বিরুদ্ধে। 
করোনার প্রকৃত উৎস নিয়ে এখনও নিশ্চিত নয় গোটা বিশ্ব। তবে বাদুড়ের শরীরে ইতিমধ্যেই এই সার্স কোভিড ভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া গিয়েছে। সেখান থেকেই মানুষের শরীরে এই ভাইরাস প্রবেশ করেছে বলে মত গবেষকদের একটা বড় অংশের। সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ার  ‘স্কাইনিউজ’–এর তরফে কয়েক বছর আগের একটি ভিডিও সামনে আনা হয়েছে। ২০১৭ সালের মে মাসে ইউহানের ইনস্টিটিউট অব ভাইরোলজির গবেষণাগারে চারস্তরীয় জৈব নিরাপত্তা বলয় তৈরি করা হয়। চীনের অ্যাকাডেমি অব সায়েন্সেস–এর তরফে তার একটি ভিডিও প্রকাশ করা হয়, তাতে দেখা যায়, খাঁচায় ভরে রাখা হয়েছে একঝাঁক জ্যান্ত বাদুড়। পা থেকে মাথা পর্যন্ত ঢাকা বিশেষ পোশাক পরে বাদুড়গুলিকে চিমটি দিয়ে পোকা খাওয়াচ্ছেন গবেষকরা। এই ভিডিও প্রকাশ্যে আসার পরই করোনার উৎস নিয়ে তদন্ত করতে যাওয়া হু–র গবেষকদের বিবৃতি নিয়ে নতুন করে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। তবে জ্যান্ত বাদুড় নিয়ে পরীক্ষা নিরীক্ষার কথা ফের অস্বীকার করেছেন ইউহানের ওই গবেষণাগারের অন্যতম প্রধান ভাইরোলজিস্ট শি ঝেঙ্গলি।