আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ কাকতালীয় ঘটনার ব্যাখ্যা আজ অবধি বিজ্ঞান দিতে পারেনি। বিজ্ঞান যেখানে গিয়ে চুপ করে যায়, সেখানেই তৈরি হয় মানুষের আকর্ষণ। সম্প্রতি এরকমই একটা ঘটনায় স্তম্ভিত হয়ে গিয়েছে টুইটার ব্যবহারকারীরা। 
চীনকে শ্মশান বানিয়ে ফেলল করোনা ভাইরাস। চীনের ইউহানে ইতিমধ্যেই এই ভাইরাসের আক্রমণে প্রায় ১৭০০–এর বেশি মানুষ মারা গিয়েছেন। আর সম্প্রতি একজন টুইটার ব্যবহারকারী একটি আশ্চর্যজনক পোস্ট করে সবাইকে চমকে দিলেন। শিউরে উঠলেন নেটিজেনরা। ৪০ বছর আগে লেখা একটি উপন্যাস ‘‌দ্য আইজ অফ ডার্কনেস’‌–এ এই করোনা ভাইরাসের মতো একটি ভাইরাসের কথা লেখা ছিল। শুধু তাই নয়, সেই ভাইরাসের কেন্দ্রও ছিল ইউহান শহর। নাম দেওয়া হয়েছিল ইউহান–৪০০। ১৯৮১ সালে ডিন কুন্টজ এই রহস্য উপন্যাস লিখেছিলেন। তাঁর উপন্যাসে বলা আছে, এই ভাইরাসটিকে তৈরি করেছিল মানুষ। জৈবিক অস্ত্র হিসেবে ল্যাবরেটরিতে বানানো হয়েছিল। যে নেটিজেন এই পোস্টটি করেছিলেন, তিনি লিখেছেন, ‘‌এক অদ্ভুত পৃথিবীতে বাস করি আমরা।’ তাঁর পোস্টটি পড়ে কেউ কেউ চিনতেও পারলেন বইটিকে। কেউ বললেন,‘‌আমি জানি এই বইটির কথা। যখন ছোটবেলায় পড়ার সময়ে খুব ভয় পেয়েছিলাম।’‌ কেউ লিখলেন, ‘‌এ কি আদৌ কাকতালীয়?‌’‌‌ কংগ্রেস নেতা মনীশ তিওয়ারি বলেছেন, ‘সত্যিই কি ৪০ বছর আগে চীনাদের বানানো জৈবিক অস্ত্রটিই এই করোনা ভাইরাস?‌ বইটি প্রকাশিত হয়েছিল ১৯৮১ সালে। পড়ে দেখুন।’‌‌ ‌

জনপ্রিয়

Back To Top