আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ মাত্র ৫০.‌৪ শতাংশ কার্যকরী তাঁদের তৈরি টিকা। মঙ্গলবার এই দাবি করেছে চীনের করোনা টিকা প্রস্তুতকারক সংস্থা সিনোভ্যাক বায়োটেক। সংস্থার আরও দাবি, ব্রাজিলে যে হিউম্যান ট্রায়াল চালানো হয়েছে তাতে দেখা গিয়েছে এই টিকা উপসর্গযুক্ত সংক্রমণকে ঠেকাতে সক্ষম। অবশ্য টিকার এই কার্যকারিতা নিয়ে খুব একটা সন্তুষ্ট নয় ব্রাজিল। জাইর বলসোনারোর দেশে যে কয়েকটি সংস্থা পরীক্ষা চালাচ্ছিল তার মধ্যে চীনের সিনোভ্যাক অন্যতম। ব্রাজিলে ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল চালাচ্ছে সংস্থাটি। খুব ভাল প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তুলবে, এমনই দাবি করেছিল সিনোভ্যাক। কিন্তু নতুন সমীক্ষার পর দেখা গিয়েছে তারা যা আশা করেছিল, তার তুলনায় এই টিকার কার্যক্ষমতা অনেকটাই কম। আর তা নিয়ে টানাপোড়েন শুরু হয়েছে ব্রাজিলে। সিনোভ্যাকের দাবি নিয়ে ইতিমধ্যেই প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছেন সে দেশের বিজ্ঞানী এবং গবেষকরা। চীনা এই টিকা নিয়ে সংশয় প্রকাশও করেছেন তাঁরা। গত সপ্তাহে সিনোভ্যাকের গবেষকরা দাবি করেছিলেন হালকা থেকে সঙ্কটজনক কোভিড রোগীদের ক্ষেত্রে তাদের টিকা ৭৮ শতাংশ কার্যকরী। কিন্তু এক সপ্তাহের মধ্যে নতুন যে ফল উঠে এসেছে তাতে প্রশ্নের মুখে পড়ছে সিনোভ্যাকের বিশ্বাসযোগ্যতা।

জনপ্রিয়

Back To Top