আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ‘‌‌আমার শত্রুপক্ষকে হাত করে আমায় ক্ষমতাচ্যুত করার চেষ্টা করছে ভারত’‌ নেপালের প্রধানমন্ত্রী ওলির তরফে এই ভয়ানক আক্রমণ এল ভারতের দিকে। নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলি এবং শাসক দলের আরেক চেয়ারম্যান পুষ্প কমল ডাহালের মধ্যে সম্পর্ক দিনদিন সাপে নেউলে হচ্ছে।
দেশের সংশোধিত মানচিত্র প্রকাশের জন্য সংবিধান সংশোধনের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল চীন। ভারতের উত্তরাখণ্ড সীমান্তের লিপুলেখ, কালাপানি, লিম্পিয়াধুরার মতো গুরুত্বপূর্ণ এলাকাকে নতুন মানচিত্রে নেপালের অংশ হিসেবে দেখাতে চায় তারা। সেই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আলোচনার জন্য দিল্লিতে একটি বৈঠক হয়েছিল, সেই প্রসঙ্গ তুলে ওলি জানালেন, ‘‌আমাদের সংবিধান সংশোধনের বিরুদ্ধে দিল্লিতে যে ঘটনাগুলি ঘটছে তা ভাবা যায় না। দিল্লি মিডিয়ার কথা শুনুন। ভারতে যে বৈঠকগুলি করা হচ্ছে তা দেখুন।’‌ তাঁর সরকার ফেলে দেওয়ার জন্য ‘‌চক্রান্ত’‌ করা হচ্ছে বলে তাঁর মত। তিনি মনে করিয়ে দিলেন, ‘‌আপনারা সবাই জেনে রাখুন যে, নেপালের জাতীয়তাবাদ এতটা দুর্বল নয় যে বাইরের যেকোনও শক্তি এসে তাকে পরাস্ত করতে পারবে।’‌ 
তাঁর দল কমিউনিস্ট পার্টি অফ নেপাল–এর মধ্যে যে মতবিরোধ শুরু হয়েছে সেকথা স্পষ্ট উল্লেখ করে জানালেন, ‘‌চিরকাল পদে বসে থাকার ইচ্ছে আমার নেই। কিন্তু এই মুহূর্তে আমার পদত্যাগ করার বিষয়ে কোনও প্রশ্নই উঠছে না। আমি যদি পদত্যাগ করি, জাতীয়তাবাদ এবং নতুন ম্যাপের নিয়ে ইস্যু নিয়ে পদক্ষেপ করার মতো কোনও নেতা থাকবেন না।’‌ 
 

জনপ্রিয়

Back To Top