আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ঐতিহাসিক লন্ডন ব্রিজের উপর ছুরি হাতে হামলা দুষ্কৃতীর। ঘটনাটি ঘটেছে স্থানীয় সময় শুক্রবার দুপুর ২টো নাগাদ। মেট্রোপলিট্যান পুলিস সূত্রে খবর, টেমস্‌–এর দক্ষিণ পাড় থেকে উত্তরদিকের পাড়ে যাওয়ার পথে ব্রিজের উপর ছুরি হাতে হামলা চালায় এক ব্যক্তি। এলোপাথাড়ি ছুরির আঘাতে জখম হয়েছেন পাঁচজন। আতঙ্কে সবাই দৌড়তে শুরু করেন। তবে ঘটনাস্থলে উপস্থিত অন্যান্য মানুষজন হামলাকারীকে কব্জা করে ফেলেন দ্রুত। চলে গণপ্রহার। খবর পেয়ে তৎক্ষণাৎ ঘটনাস্থলে পৌঁছয় মেট্রোপলিট্যান পুলিস। মারমুখী জনতার হাত থেকে হামলাকারীকে উদ্ধার করতে শূন্যে কয়েক রাউন্ড গুলি চালায় পুলিস। হামলাকারী পুলিসের সঙ্গে ধ্বস্তাধ্বস্তিতে জড়িয়ে পড়লে তাকে গুলি করে পুলিস। পরে তাকে আটক করা হয়। জখমদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। ঘটনার জেরে বন্ধ করে দেওয়া হয় লন্ডন ব্রিজ স্টেশন। ওই স্টেশনে মেইন লাইনের কোনও ট্রেন থামবে না বলে যাত্রীদের উদ্দেশ্যে ঘোষণা করে দেয় লন্ডনের টিউব রেল। পুরো ব্রিজ এবং লাগোয়া অঞ্চল খালি করে ব্রিজের উপর যান চলাচল সাময়িকভাবে স্থগিত করে দেওয়া হয়। হামলার খবর পেয়ে পুলিস কর্তৃপক্ষের কাছে ঘটনা জানতে চান ইংল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। পরে পুলিসের তৎপরতার জন্য টুইটারে তাদের অভিনন্দনও জানান। ইংল্যান্ডের স্বরাষ্ট্রসচিব প্রীতি প্যাটেলও এব্যাপারে উদ্বেগ প্রকাশ করে জখমদের দ্রুত সু্স্থ হয়ে ওঠার কামনা করেছেন। লেবার পার্টির নেতা জেরেমি করবিনও পুলিসের প্রশংসা করে ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেন। তদন্ত শুরু হয়েছে। এই ঘটনার সঙ্গে জঙ্গি কার্যকলাপের যোগ আছে বলেই প্রাথমিক অনুমান লন্ডন মেট্রোপলিট্যান পুলিসের। পরিস্থিতির দিকে নজর রাখছে স্কটল্যান্ড ইয়ার্ড।

জনপ্রিয়

Back To Top