আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ওসামা বিন লাদেনকে মার্কিন সেনাবাহিনীর কাছে ধরিয়ে দিয়েও আজও জেলে পচছেন পাকিস্তানি চিকিৎসক। শাকিল আফ্রিদি নামে ওই পাক চিকিৎসক ২০১১ সালে লাদেন এবং তার পরিবারের ডিএনএ নমুনা পেতে নকল হেপাটাইটিস বি–র ভ্যাক্সিনেশন কর্মসূচি শুরু করেছিলেন পাকিস্তানে। সেভাবেই লাদেনের ডিএনএ–র নমুনা পেয়ে তিনি মার্কিন সেনাকে নিশ্চিত করেন অ্যাবটাবাদে লুকিয়ে আছে সপরিবার আল–কায়দা প্রধান। কিন্তু তারপরই শাকিল আফ্রিদিকে গ্রেপ্তার করে পাকিস্তানি পুলিস। পাকিস্তান মনে করে তিনি দেশদ্রোহী। যদিও তাঁর বিরুদ্ধে এধরনের কোনও চার্জ আনা হয়নি। তাহলে শাকিল সুপ্রিম কোর্টে আপিল করতে পারতেন এবং তারপর লাদেন অভিযানের মামলার শুনানি জনসমক্ষে করতে হত যা পাকিস্তানের সরকার বা নাগরিকদের অস্বস্তি ফেলতে পারে। ফলে পাকিস্তান তা চাইছে না। ২০১২ সালের পর থেকে তাঁর আইনজীবীকেও শাকিলের সঙ্গে দেখা করতে দেওয়া হয়নি। শুধু তাঁর স্ত্রী এবং সন্তানরাই তাঁর সঙ্গে দেখা করতে পারেন। এমনকি বছর দুয়েক তাঁর ফাইলও হারিয়ে যায়। পরে অবশ্য তা খুঁজে পেয়েছে পুলিস। শাকিলের এহেন অবস্থার কথা জানতে পেরে কিছুটা হলেও অবাক আমেরিকা। ২০১৬–য় প্রেসিডেন্ট পদে লড়ার সময় ডোনাল্ড ট্রাম্প  বলেওছিলেন, দু’‌মিনিটে শাকিলকে কারামুক্ত করবেন, কারণ, আমেরিকা পাকিস্তানকে নানাভাবে সাহায্য করে। তাই আমেরিকার কথা ঠিকই শুনবে পাকিস্তান। কিন্তু আজও মুক্তি পাননি শাকিল আফ্রিদি।              

জনপ্রিয়

Back To Top