Kidnapped Woman:‌ গণধর্ষণেই যন্ত্রণার ইতি নয়, মানুষের মাংস রান্না করিয়ে নির্যাতিতাকে খেতে বাধ্য করত জঙ্গিরা 

আজকাল ওয়েবডেস্ক: ধর্ষণ করেই ক্ষান্ত হত না জঙ্গিরা।

মানুষের মাংস রান্না করিয়ে তা খেতে বাধ্য করা হত। মানবাধিকার সংগঠনের মুখে এই কাহিনি শুনে স্তম্ভিত রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদের সদস্যরা। গণ প্রজাতান্ত্রিক কঙ্গোর এই ঘটনায় শিউরে উঠেছে বিশ্ব। 
বুধবার কঙ্গো–পরিস্থিতি নিয়ে নিরাপত্তা পরিষদে আলোচনা চলার সময় কঙ্গোয় অবস্থিত একটি নারী অধিকার রক্ষা সংগঠনের প্রেসিডেন্ট জুলিয়েন লুসেঞ্জ একটি রুদ্ধশ্বাস ঘটনার কথা উল্লেখ করেন। তিনি জানান, কঙ্গোর এক মহিলা কোডেকো জঙ্গিদের কাছে অন্য এক অপহৃতকে ছাড়াতে গিয়ে নিজেও অপহৃত হন। জঙ্গিরা তাঁকে বার বার ধর্ষণ করে। অকথ্য অত্যাচারের পর তাঁর সামনেই একজনের গলা কেটে ফেলে জঙ্গিরা। এরপরের ঘটনাই শিউরে ওঠার মতো। গলা কাটা দেহ থেকে অন্ত্রটি খুবলে বের করে মহিলার দিকে এগিয়ে দেয় জঙ্গিরা। মহিলাকে সেই অন্ত্র রান্না করার নির্দেশ দেয়। সেই রান্না করা অন্ত্রই খেতে হয় মহিলাকে। এই ঘটনার ক’দিন বাদে মহিলাকে কোডেকো জঙ্গিরা ছেড়ে দেয়। বাড়ি ফেরার পথে আবার তাঁকে অপহরণ করে অন্য এক জঙ্গিগোষ্ঠী। সেখানেও একই ঘটনা ঘটে তাঁর সঙ্গে। গণধর্ষণের পর মানুষের মাংস রেঁধে খাওয়ানো হয়। কোনওরকমে সেখান থেকে পালান মহিলা। জুলিয়েনের মুখে মহিলার কথা শুনে স্তম্ভিত নিরাপত্তা পরিষদের সদস্য দেশগুলি। 

আরও পড়ুন:‌ বড়সড় নাশকতার ছক বানচাল!‌ ৮১ হাজার ডিটোনেটর উদ্ধার করল এসটিএফ

আকর্ষণীয় খবর