আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ নাগাড়ে ঝড়বৃষ্টির জেরে কেনিয়ায় ভূমিধসের ঘটনা ঘটল। রাতভর প্রবল ঝড়বৃষ্টির জেরে ভূমিধসে প্রাণ হারালেন ২৯ জন। ভোররাতে ভূমিধস নামে নাইরোবি থেকে ২২০ কিলোমিটার দূরের পোকোটে। উদ্ধারকাজের জন্য সেনা এবং পুলিশের হেলিকপ্টার পাঠানো হয়েছে। এই ভূমিধসের ফলে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে যোগাযোগ ব্যবস্থাও। মৃত্যুর সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। কারণ এই ভূমিধসে কেউ চাপা পড়ে থাকতে পারে বলেই এমন আশঙ্কা। অধিকাংশ জায়গায় রাস্তা এবং সেতু ভেঙে পড়ায় উদ্ধারকাজে দেরি হচ্ছে। মৃতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন অভ্যন্তরীণ মন্ত্রী ফ্রেড মাতিয়াঙ্গ।
প্রশাসন সূত্রে খবর, বানভাসী পরিস্থিতি তৈরি হওয়ায় গ্রামের সঙ্গে গ্রামের যোগাযোগ রাস্তা বিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়েছে। একটা সেতু ভেসে গিয়েছে জলের তোড়ে। এই প্রাকৃতিক দুর্যোগে সাতজন শিশু মারা গিয়েছে। রাস্তার ওপর পড়ে রয়েছে গাছ, কাদা এবং ধ্বংসস্তুপ। এটা ভয়াবহ ভূমিধস হিসাবে চিহ্নিত করা হয়েছে। 
কেনিয়ার প্রেসিডেন্ট উহুরু কেনিয়াট্টা এই ব্যাপক প্রাণহানিতে গভীর শোকপ্রকাশ করেছেন। স্থানীয় সূত্রে খবর, পোকোটই সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সেখানে উদ্ধারকারীর দল পৌঁছে গিয়েছে। ধ্বংসস্তূপ থেকে দু’‌টি বাচ্চাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। প্রবল বৃষ্টি হয়েই চলেছে। যা উদ্ধারকাজে সবচেয়ে বড় বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে। গত কয়েক সপ্তাহের ক্রমাগত বৃষ্টি ও বন্যায় বিধ্বস্ত পূর্ব আফ্রিকার বিস্তীর্ণ অংশ। সোমালিয়া, তানজানিয়া এবং ইথিওপিয়ারও একই অবস্থা।‌

জনপ্রিয়

Back To Top