আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ অভিনেতা–অভিনেত্রীদের অনেক ফ্যান–ফলোয়ার থাকে। ভাল লাগার জায়গা থাকে তাঁদের প্রতি। কিন্তু একজনের ভাল লাগা এবং তা অন্যজনের হিংসার কারণ হয়ে দাঁড়ানো, আর তা থেকে খুনের ঘটনা এটা বোধহয় বিরল। তবে বিরল হলেও বাস্তবে এমনই ঘটেছে। আর কাঠগড়ায় দাঁড়িয়েছে বলিউড অভিনেতা তথা মাসল ম্যান ঋত্বিক রোশন। এই বলিউড অভিনেতার প্রতি অ্যাফেকশন বা ভাল লাগা ছিল এক গৃহবধূর। তার ফলে হিংসা হয় তাঁর স্বামীর। রাগের চোটে তাঁকে খুন করে স্বামী বলে অভিযোগ। 
এই ঘটনা নিয়ে এখন জোর চর্চা শুরু হয়েছে। কারণ একটা দাম্পত্য সম্পর্ক বলিউড তারকার জন্য হত্যালীলায় পরিণত হবে, এটা ভাবা বেশ কঠিন। পুলিশ সূত্রে খবর, দীনেশ্বর বুদিদাত (‌৩৩)‌ খুন করেছেন তাঁর স্ত্রী ডন্নি ডোজয় (‌২৭)‌–কে। শুক্রবার স্ত্রীকে খুন করার পর গাছে পর্যন্ত ঝুলিয়ে দেয়। কারণ স্ত্রী অসম্ভব পছন্দ করতেন বলিউড অভিনেতা ঋত্বিককে। যা পছন্দ করতেন না স্বামী এবং কার্যত হিংসা করতেন। প্রায়ই গালিগালাজ করতেন স্ত্রীকে। এমনকী এটাই একটা বচসার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছিল। যা শেষ হল খুনের মধ্য দিয়ে। 
তবে স্বামী দীনেশ্বর বুদিদাতকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাঁকে আদালতে তোলা হলে তিনি প্রথমে উল্টোপাল্টা বকতে থাকেন। পরে চেপে ধরা হলে তিনি স্বীকার করেন স্ত্রীকে খুনের কথা। আদালতে দাঁড়িয়ে অভিযুক্ত জানান, অনেক নিষেধ করেছিলাম। তারপরও শুধু ঋত্বিকের সিনেমা দেখত। তাঁর সিনেমার গান শুনতো ও গাইত। যা আমি পছন্দ করতাম না। আমার হিংসা হতো। তা থেকেই খুনের ঘটনা ঘটেছে। যদিও ঘটনাস্থল নিউইয়র্কে। ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top