আজকাল ওয়েবডেস্ক: জাপান দেশটির অবিচ্ছেদ্য অংশ চেরি ব্লসম ফুল, জাপানি ভাষায় যাকে বলে সাকুরা। প্রতিবছর খুব অল্পদিনের জন্য সাদা এবং গোলাপি রঙের এই ফুলে ছেয়ে যায় রাস্তাঘাট, পাহাড়-পর্বত। এ বছর যেন চোখের নিমেষে কেটে গেল চেরি ব্লসমের সময়। অন্যান্য বছরের তুলনায় অনেক আগে ফুটল এই ফুল। পরিবেশ বিজ্ঞানীরা বিষয়টি নিয়ে উদ্বিগ্ন। তাঁরা বলছেন, জলবায়ু পরিবর্তনই এর জন্য দায়ী। ভবিষ্যতে আরও বিপদ ঘটবে। 
ওসাকা প্রিফেকচার বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক ইয়াসুয়ুকি আওনো কিয়োতো শহরের ১২০০ বছর আগেকার নথি ঘেঁটে ফেলেছেন৷ এ বছর ২৬ মার্চ ওই শহরে চেরি ব্লসমের সবথেকে বেশি ফুল দেখা গেছিল। ৮১২ খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত এটাই সবথেকে আগে ফুল ফোটার রেকর্ড। রাজধানী টোকিয়োতে ২২ মার্চ 'পিক সিজন' ছিল। এটি আগে ফোটার ক্ষেত্রে দ্বিতীয়। 
কলাম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ডঃ লিউইস জিব্রাস্কা বলছেন, বিশ্বব্যাপী তাপমাত্রা বাড়ছে, ফলে বসন্তের শেষ মিহি তুষারপাত আগে আগে হয়ে যাচ্ছে। তাই ফুলও ফুটছে আগেভাগেই।  
চেরি ব্লসম ফুলের পিক সিজন প্রত্যেক বছর সরে সরে যায়। তার পেছনে তাপমাত্রা, বৃষ্টিপাত সহ নানা কারণ রয়েছে। বহু শতাব্দী ধরে এপ্রিলের মাঝামাঝি এই ফুলের সমারোহ দেখা যেত। ১৮০০ থেকেই এপ্রিলের শুরুর দিকে এগিয়ে আসতে শুরু করেছে মরসুম। আর এখন মার্চের শেষ হয়ে মাঝের দিকে পা বাড়াচ্ছে। যা কার্যত বিপদসংকেত বলে মনে করছেন পরিবেশ বিজ্ঞানীরা।

জনপ্রিয়

Back To Top