আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ এবার নিজেকে উদার প্রমাণ করার চেষ্টা করলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তিনি শুক্রবার ঘোষণা করেন, কারতারপুরে যেসব ভারতীয় পুণ্যার্থী দরবার সাহিবে আসবেন তাঁদের নানা সুযোগ সুবিধা দেওয়া হবে। এতদিন ভারতের সঙ্গে বৈরিতার মনোভাব নিয়েই চলেছে পাকিস্তান। সেখানে হঠাৎ ইমরানের এহেন পরিবর্তিত আচরণ বেশ ভাবিয়ে তুলেছে নয়াদিল্লিকে। আগামী ৯ নভেম্বর কারতারপুর করিডরের উদ্বোধন হবে। আর ১২ নভেম্বর গুরু নানকের ৫৫০ তম জন্মবার্ষিকী। 
এই পরিস্থিতিতে ইমরানের ভারতীয় পুণ্যার্থীদের জন্য দরদ নতুন কোনও ছক কিনা তা নিয়ে চর্চা শুরু হয়েছে। এই ঘোষণা করে পরে ভারতীয় পুণ্যার্থীদের ওপর আক্রমণ নামিয়ে আনা হবে না তো?‌ এই পথ ধরেই জঙ্গিরা ভারতে ঢুকে নাশকতা করবে না তো?‌ এমনই সব প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। এদিন টুইটারে ভারতীয় পুণ্যার্থীদের জন্য বেশ কিছু ছাড়ের কথা উল্লেখ করেছেন তিনি। যা নিজের ভাবমূর্তিকে মহান এবং উদার বলে প্রমাণের চেষ্টা বলে মনে করা হচ্ছে।
কী ছাড় দিচ্ছেন ইমরান খান?‌ তিনি টুইটে লিখেছেন, ‘‌ভারতীয় পুণ্যার্থীদের এখানে আসার জন্য পাসপোর্ট লাগবে না। শুধু বৈধ প্রমাণপত্র থাকলেই হবে। তাছাড়া ১০ দিন আগে থেকে তাঁদেরকে নাম নথিভুক্ত করতে হবে না। এমনকী যে পরিষেবা কর ২০ ডলার (‌ভারতীয় টাকায় ১৪২০ টাকা)‌ ধার্য করার কথা ভাবা হয়েছিল তাও মুকুব করে দেওয়া হচ্ছে। অর্থাৎ এখানে আসতে ভারতীয়দের অর্থ দিতে হবে না। উল্লেখ্য, গত ২৪ অক্টোবর কারতারপুর করিডর নিয়ে চুক্তি সাক্ষরিত হয়েছিল ভারত–পাকিস্তানের মধ্যে। 

জনপ্রিয়

Back To Top