সংবাদ সংস্থা
ওয়াশিংটন, ১২ জুলাই

অবিশ্বাস্য! ‌মাস্ক পরেছেন মার্কিন প্রোসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প!‌ বিশ্বাস হচ্ছে না তো?‌ ব্যাপারটা কিন্তু নির্ভেজাল। আমেরিকায় করোনা–‌আক্রান্ত ৩৩,৫৭,১৩০ জন। মৃত ১,৩৭, ৪১৮। দেখেও হুঁশ হয়নি ট্রাম্পের। মাস্ক না পরার অদ্ভুত জেদ ধরেছিলেন। ছ’‌মাস নিজের জেদে অনড় ছিলেন। শেষ পর্যন্ত পেরে উঠলেন না। শনিবার কলম্বিয়ার ওয়াল্টার রিড সেনা হাসপাতাল পরিদর্শনের গিয়ে প্রথম বার নাকের ডগায় মাস্ক ঝোলালেন ট্রাম্প। দেখে সকলেই অবাক। ট্রাম্পের মুখে নেভি ব্লু রঙের মাস্ক। ছবি ঘুরছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। আর অস্বস্তি বা দুর্বল দেখানোর কথা নেই মুখে।
মাস্ক না পরার সময় ডোন্টকেয়ার ভাব দেখাতেন। ঘনিষ্ঠদের কাছে এও বলছেন, মাস্ক পরলে তঁাকে দুর্বল মনে হবে। সে–‌কথা সহ্য করতে পারবেন না। তাই মাস্ক ছাড়া ঘোরাফেরা ভাল। এখন বলছেন, তিনি মাস্ক–‌বিরোধী নন। বরং স্থান–কাল দেখে মাস্কের ব্যবহারের পক্ষপাতী। হাসপাতালের করিডরে মাস্ক পরে ঘোরাফেরার পর বলেন, ‘‌আমার মনে হয় আপনি যদি হাসপাতালের মতো জায়গায় যান বা অনেকের সঙ্গে অথবা সেনাদের সঙ্গে কথা বলেন, তখন মাস্কের প্রয়োজন আছে।’‌
এর আগে ভিড়ে ঠাসা সভাঘরে নির্বাচনী প্রচার করেছেন ট্রাম্প। মাস্ক ছিল না মুখে। মন্ত্রী–আমলাদের সঙ্গে প্রশাসনিক বৈঠকে, সাংবাদিক সম্মেলনে মাস্ক তো দূরের কথা, সামাজিক দূরত্ববিধির তোয়াক্কা পর্যন্ত করেননি ট্রাম্প। হোয়াইট হাউসের কর্মীদের মধ্যে সংক্রমণ ছড়ালেও গুরুত্ব দেননি। ডেমোক্র‌্যাট দলের সদস্য জো বিডেন মাস্ক পরায় তঁাকে নিয়ে ঠাট্টা–‌মশকরা করেছিলেন। বিশেষজ্ঞদের পরামর্শকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে মাস্ক ছাড়াই ঘুরছিলেন। পরে অবশ্য ট্রাম্প মাস্ক পরবেন কি না সেটাই দেখার।‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top