আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ রাষ্ট্রসঙ্ঘে ফের বড় ধাক্কা পাকিস্তানের। সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে ক্রমেই চাপে পড়ছিল ইমরান সরকার। তাই পাল্টা চাপ দিতে চেষ্টা করেছিল। সেটাই ব্যুমেরাং হয়ে ফিরল। 
কয়েক দিন আগে রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদে ভারতের আরএসএসকে হিংসাত্মক চরমপন্থী দল বলে আখ্যা দেয় পাকিস্তান। তাদের নিষিদ্ধ করার দাবি তোলে। এরই জবাবে এদিন পাকিস্তানকে নিজেদের মুখ আয়নায় দেখার পরামর্শ দিল ভারত।
এদিন ভারতের তরফে এই নিয়ে বলা হয়, ‘‌বিশ্ব জুড়ে সন্ত্রাসবাদ বেড়ে চলেছে। এই পরিস্থিতিতে জঙ্গি কার্যকলাপের শিকার হচ্ছে ধর্মীয় স্থানগুলি। বামিয়ানে বুদ্ধ মূর্তি ধ্বংস থেকে কয়েক দিন আগেই পাকিস্তানে মন্দির নষ্ট, একের পর এক উদাহরণ আমরা দেখেছি। আমাদের এই সব আক্রমণের বিরুদ্ধে সঙ্ঘবদ্ধ হতে হবে।’‌
এরপর পাকিস্তানকে কড়া সুরে কটাক্ষ করে ভারতের তরফে বলা হয়, ‘‌এটি অত্যন্ত বিদ্রূপের বিষয়। যে দেশটিতে সম্প্রতি একটি ঐতিহাসিক হিন্দু মন্দিরের উপর হামলার মতো ধ্বংসাত্মক ঘটনা ,তারা আমাদের বিরুদ্ধে শান্তির সংস্কৃতি সংক্রান্ত প্রস্তাবনা আনছে। সেই দেশে এই ধরনের হামলার ঘটনা প্রায়ই ঘটেছে এবং সেখানে সংখ্যালঘুদের অধিকার হরণ করা হচ্ছে। এহেন প্রস্তাবনার পিছনে লুকাতে পারে না পাকিস্তান।'
প্রসঙ্গত, পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখোয়ায় মন্দির সংস্কারের কাজ চলছিল। অভিযোগ, স্থানীয় এক মৌলবির নেতৃত্ব লোকজন সেই মন্দির ভেঙে পুড়িয়ে দেয়। 
 

জনপ্রিয়

Back To Top