আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ চীনকে হারিয়ে আন্তর্জাতিক মঞ্চে জয় পেল ভারত। ভোটে জিতে রাষ্ট্রপুঞ্জের নারী স্বাধীনতা ও ক্ষমতায়ন সংক্রান্ত কমিশনের সদস্য হল আফগানিস্তান ও ভারত। বেজিং সেখানে যোগ্যতা অর্জনের জন্য ন্যূনতম প্রয়োজনীয় ভোটই পায়নি। রাষ্ট্রপুঞ্জে ভারতের স্থায়ী প্রতিনিধি টি এস ত্রিমূর্তি এই খবর জানিয়েছেন। রাষ্ট্রপুঞ্জের সম্মানজনক মহিলা কমিশনের সদস্য হওয়া অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মত কূটনৈতিক শিবিরের।
রাষ্ট্রপুঞ্জের ইকোনমিক অ্যান্ড সোশ্যাল কাউন্সিল (ইসিওএসওসি)–এর অধীনে গুরুত্বপূর্ণ শাখা ‘কমিশন অন স্টেটাস অব উইমেন’ (সিএসডব্লিউ)। মহিলাদের অধিকার, নারী ক্ষমতায়ন এবং লিঙ্গ বৈষম্য দূরীকরণ ইত্যাদি নিয়ে কাজ করে এই কমিশন। নিউইয়র্কে স্থানীয় সময় সোমবার কমিশনের নির্বাচন হয়। ভোটে মোট ব্যালট ছিল ৫৪। সব সদস্যই ভোট দিয়েছেন। কমিশনের সদস্য হওয়ার জন্য ন্যূনতম ভোট দরকার ছিল অর্ধেকের বেশি অর্থাৎ ২৮। গণনায় দেখা যায় সবচেয়ে বেশি ভোট পেয়েছে আফগানিস্তান, ৩৯টি। একটি ভোট কম অর্থাৎ ৩৮ ভোট পেয়ে দ্বিতীয় স্থানে ভারত। চীনের বাক্সে পড়েছে ২৭টি ভোট।
রাষ্ট্রপুঞ্জের এই কমিশনের সদস্য হওয়া যে কোনও দেশের কাছেই অত্যন্ত গর্বের বিষয়। এই জয়ের পর টি এস ত্রিমূর্তি টুইটারে লিখেছেন, ‘ভারত ইসিওএসওসি–র আসন জিতেছে। ভারত এখন সিএসডব্লিউ–এর নির্বাচিত সদস্য। লিঙ্গবৈষম্য দূরীকরণ ও নারী ক্ষমতায়নের জন্য আমাদের লড়াইয়ের স্বীকৃতি এটা। সমর্থনের জন্য সদস্য দেশগুলিকে ধন্যবাদ।’ এই নির্বাচনে জয়ের পর ভারত ২০২১ থেকে ২০২৫ সাল পর্যন্ত পাঁচ বছরের জন্য কমিশনের সদস্য থাকবে। 
 

জনপ্রিয়

Back To Top