আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ মায়ানমারে সেনা অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ–আন্দোলন দমাতে ‘‌টিকটক’ ব্যবহার করা শুরু করেছেন সে দেশের সেনা, পুলিশ। টিকটকেই হুমকি দেওয়া হচ্ছে আন্দোলনকারীদের। সংবাদ সংস্থা রয়টার্স গত ফেব্রুয়ারির শেষের দিকে তোলা একটি ভিডিও‌ প্রকাশ করেছে। সেখানে মায়ানমারের এক সেনা অফিসারকে ক্যামেরার দিকে বন্দুক তাক করে বলতে শোনা যাচ্ছে, ‘‌যাঁকেই দেখব, মুখে গুলি করব। কারও শহিদ হওয়ার ইচ্ছে থাকলে আমি সেই ইচ্ছে পূরণ করব।’‌ গোটা বিশ্বে আলোড়ন ফেলে দিয়েছে সেই ভিডিও। 
প্রায় প্রত্যেক দিনই রক্তপাত ঘটছে মায়ানমারে। বুধবারই আন্দোলনকারীদের সঙ্গে সঙ্ঘর্ষে ৩৮ জন নাগরিককে গুলি করে মেরেছে মায়ানমারের সেনা ও পুলিশ। গত ১ ফেব্রুয়ারি সে দেশে সেনা অভ্যুত্থানের পর এই প্রথম একদিনে এতজন আন্দোলনকারীর প্রাণ গেল। এর আগে ফেব্রুয়ারি মাসের শেষের দিকেই একদিনে পুলিশের গুলিতে ১৮ জন বিক্ষোভকারীর প্রাণ গিয়েছিল। 
গত মাসখানেক ধরে আন্দোলন চলছে মায়ানমারে। নোবেলজয়ী নেত্রী সু কি–র মুক্তি এবং গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার দাবিতে রাস্তায় নামছেন কাতারে কাতারে মানুষ। রোজই সেনা, পুলিশের সঙ্গে সঙ্ঘর্ষে বিক্ষোভকারীদের সঙ্ঘর্ষের ঘটনা ঘটছে সেখানে। সেনা অভ্যুত্থান এবং আন্দোলনের দমানোর কড়া সমালোচনা করেছে রাষ্ট্রপুঞ্জ, আমেরিকার বাইডেন প্রশাসন।   

জনপ্রিয়

Back To Top