আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ পাকিস্তান রয়েছে পাকিস্তানেই। তাই সেখানে ধর্ম–জাত নিয়ে বিরুদ্ধ মত পোষণ করলেই চলে ভাঙচুর, খুন, অগ্নিসংযোগের ঘটনা। অভিযোগ উঠেছে, ইসলাম বিরোধী মন্তব্যকে কেন্দ্র করে বিক্ষোভে উত্তাল পাকিস্তানের সিন্ধ প্রদেশের শহর ঘোটকি। ইতিমধ্যেই সেখানে বেশকিছু হিন্দু মন্দির এবং বাড়িঘরে হামলা করেছে বিক্ষোভকারীরা। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ছবি ভাইরাল হয়ে গিয়েছে।
ঠিক কী ঘটেছে? স্থানীয় সূত্রে খবর, সিন্ধ পাবলিক স্কুলের অধ্যক্ষ নোটন দাস নাকি নবির বিরুদ্ধে অপমানজনক মন্তব্য করেছেন। এই অভিযোগ করেন এক অভিভাবক। তা নিয়ে থানায় এফআইআর দায়ের করা হয়। কিন্তু খবর ছড়িয়ে পড়তেই উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে শহরজুড়ে। ওয়ার্ল্ড সিন্ধ সমাজের পক্ষ থেকে দেশে সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা দেওয়ার জন্য পাক সরকারকে চাপ সৃষ্টি করার আহ্বান জানানো হয়েছে। প্রদেশের ওয়ার্ল্ড সিন্ধ কংগ্রেস সংগঠন সূত্রে খবর, শহরের একাধিক হিন্দু মন্দির, দোকান, ঘরবাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে।
যদিও পাক সংবাদমাধ্যমের দাবি, আপাতত ঘোটকির পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণেই রয়েছে। হামলাকারীদের বিরুদ্ধে তথ্য সংগ্রহ করে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। এলাকার মানুষের দাবি গ্রেপ্তার করতে হবে স্কুলের ওই অধ্যক্ষকে। 

জনপ্রিয়

Back To Top