Germany: পরিসংখ্যান প্রকাশ্যে, জার্মানির জনসংখ্যা রেকর্ড

 
সুদেষ্ণা ভট্টাচার্য, ফ্রাঙ্কফুর্ট: জার্মানির জনসংখ্যা ২০২২ সালে সর্বকালের সর্বোচ্চ ৮৪.৩ মিলিয়নে পৌঁছেছে।

ফেডারেল অফিস অফ স্ট্যাটিস্টিকস, যা ডেস্টাটিস বলে পরিচিত, তাঁদের প্রকাশিত প্রাথমিক পরিসংখ্যানে জানা যাচ্ছে জার্মানিতে আগের চেয়ে অনেক বেশি লোক বাস করছে।

একটি বিবৃতিতে ডেস্টাটিস জানায়, "এটি বছর শেষে রেকর্ড করা বাসিন্দাদের সর্বোচ্চ সংখ্যা।" প্রথম হিসেব অনুযায়ী, দেশের জনসংখ্যা বেড়েছে ১.১ মিলিয়ন।

গতবছরও রেকর্ড অভিবাসনের বছর ছিল বলে জানা যাচ্ছে ডেস্টাটিস তথ্য অনুযায়ী। ২০২২ সালে, আনুমানিক ১.৪২ থেকে ১.৪৫ মিলিয়ন বেশি লোক দেশে ছেড়ে যাওয়ার চেয়ে জার্মানিতে এসেছে। এরমানে হলো মোট অভিবাসন আগের বছরের তুলনায় চারগুণ বেশি (৩২৯,১৬৩) এবং ১৯৫০ সালে টাইম সিরিজ শুরু হবার পর থেকে যেকোনও সময়ের চেয়ে বেশি।

বেশিরভাগ অভিবাসীরা ছিলেন ইউক্রেনের যুদ্ধের কারণে দেশ ছেড়ে আসা মানুষ, কিন্তু অন্য দেশ থেকে আসা লোকজনের সংখ্যাও উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে।

একই সময়ে,জন্মের সংখ্যা হ্রাস পেয়েছে,এবং মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েছে।২০২১ সালের তুলনায় জন্মের সংখ্যা প্রায় ৭% কমেছে এবং সংখ্যায় প্রায় ৭৩৫,০০০ থেকে ৭৪৫,০০০ মধ্যে হবে বলে মনে করা হচ্ছে। ২০২২ সালে, ১.০৬ মিলিয়ন মানুষ মারা গেছেন, যা আগের বছরের তুলনায় ৪% বেশি।

ইউক্রেনীয় শরনার্থী এবং অন্যান্য অভিবাসীদের আগমন প্রথমবারের মতো জার্মানির জনসংখ্যাকে ৮৪ মিলিয়নের উপরে ঠেলে দিয়েছে।

এটি আসাদের যুদ্ধ শুরুর পর থেকে জার্মানিতে সিরিয়ার শরনার্থীদের সংখ্যার প্রায় দ্বিগুণ। সর্বশেষ পরিসংখ্যান থেকে জানা যায় যে ২০১১ সাল থেকে প্রায় ৫৮০,০০০ সিরীয়কে আশ্রয় দেওয়া হয়েছে, বেশিরভাগই ২০১৫ এবং ২০১৬ সালে এসেছিলেন।

আকর্ষণীয় খবর