আজকাল ওয়েবডেস্ক: দুর্নীতির দায়ে তিন বছর কারাদণ্ডের সাজা হল প্রাক্তন ফরাসি প্রেসিডেন্ট নিকোলাস সারকোজির। ৬৬ বছরের সারকোজির বিরুদ্ধে এক ম্যাজিস্ট্রেটকে ঘুষ দেওয়ার অভিযোগ ছিল। ম্যাজিস্ট্রেট গিলবার্ট অ্যাজিবার্টকে মোনাকো শহরে বড় চাকরি দেওয়ার বিনিময়ে সারকোজি তাঁর রাজনৈতিক দলের বিরুদ্ধে ফৌজদারী প্রক্রিয়ার গোপন তথ্য হাতিয়েছিলেন। ওই ম্যাজিস্ট্রেট এবং সারকোজির আইনজীবীর থিয়েরি হেরজঁরও একই সাজা হয়েছে।
অবশ্য জেলে যেতে হচ্ছে না তাঁকে। বাড়িতেই বন্দিদশা কাটাতে পারবেন তিনি। পায়ে শুধু একটি যন্ত্র বাঁধা থাকবে তাঁর। বন্দি কোথায় আছে তার হদিশ দেয় এই ‘ট্যাগ’ যন্ত্র। 
প্যারিসের আদালতে বিচারপতি বলেন, ‘সারকোজি জানতেন তিনি যা করছেন তা ভুল। তাঁর এবং তাঁর আইনজীবীর কাজ বিচারব্যবস্থা নিয়ে সাধারণের সামনে খারাপ ভাবমূর্তি তুলে ধরেছে।’ দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর প্রেসিডেন্ট হিসেবে কারাবাসের সাজাপ্রাপ্ত দ্বিতীয় ব্যক্তি হলেন সারকোজি। এর আগে ২০১১ সালে জাক শিরাকের দু’ বছরের কারাদণ্ড হয়েছিল। জানা গেছে, আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ করার সুযোগ রয়েছে সারকোজির।       
  

জনপ্রিয়

Back To Top