Covid Wave: ডেল্টা ঢেউয়ে দেশে প্রাণ গেছিল ২.‌৪ লাখের, হতে পারে পুনরাবৃত্তি:‌ আশঙ্কা রাষ্ট্রসঙ্ঘের

আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ২০২১ সালের গোড়ায় দেশে আছড়ে পড়েছিল কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউ।

এর জন্য দায়ী ছিল মূলত করোনা ভাইরাসের ডেন্টা প্রজাতি। মারাত্মক এই সংক্রমণে দুনিয় জুড়ে প্রাণ হারিয়েছিলেন লাখ লাখ মানুষ। আমেরিক, ইউরোপে চলেছিল মৃত্যুর মিছিল। ভারতও কম মৃত্যু দেখেনি। রাষ্ট্রসঙ্ঘ বলছে, এই ডেল্টা ঢেউয়ে ভারতে প্রাণ হারিয়েছিলেন প্রায় ২ লক্ষ ৪০ হাজার মানুষ। তাদের আশঙ্কা, দেশে ফের এই ভয়ঙ্কর মৃত্যু মিছিলের পুনরাবৃত্তি হতে পারে।
এই নিয়ে একটি রিপোর্ট পেশ করেছে রাষ্ট্রসঙ্ঘ। ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক সিচুয়েশনস অ্যান্ড প্রসপেক্ট (‌২০২২)‌ শীর্ষক রিপোর্টে বলা হয়েছে, ২০২১ সালের এপ্রিল থেকে জুন পর্যন্ত চলেছিল এই ডেল্টা ঢেউ। তাতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল ভারতের আর্থিক বৃদ্ধি। রাষ্ট্রসঙ্ঘের আশঙ্কা, শিগগিরই ফের এ রকম ঘটনা হতে পারে। 
রাষ্ট্রসঙ্ঘের ইকোনমিকাল এবং সোশাল অ্যাফেয়ার বিভাগের আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল লিউ ঝেনমিনের মতে, দুনিয়ার সব দেশের মানুষ টিকা না পেলে এ রকম মহামারির ঢেউ আসতেই থাকবে। আর তার জেরে ক্ষতিগ্রস্ত হবে একের পর এক দেশের অর্থনীতি। রিপোর্ট বলা হয়েছে, আর্থিক দিক থেকে এই মহামারির জেরে ক্ষতির মুখে সবথেকে বেশি পড়েছে দক্ষিণ এশিয়া। পাশাপাশি এই অংশে টিকাকরণের গতি অত্যন্ত কম। সে কারণে বারবার আসছে সংক্রমণের ঢেউ। আর্থিক কারণে বহু দেশই যথেষ্ট টিকা কিনতে পারছে না। টিকা বিলিতেও অসঙ্গতি রয়েছে। ধনী দেশগুলো আগেভাগে নিয়ে রাখছে। ফলে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোতে সংক্রমণ পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আসছে না। 

Covid: কোভিড রোগীদের চিকিৎসায় মিলল নতুন পথ, ২টি পদ্ধতিতে অনুমোদন WHO–র
২০২১ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত বাংলাদেশ, পাকিস্তান, নেপালের ২৬ শতাংশ প্রাপ্তবয়স্ক নাগরিক টিকার দু’‌টি ডোজ পেয়েছেন। আর ভুটান, শ্রীলঙ্কা, মালদ্বীপে ৬৪ শতাংশ নাগরিক টিকার দু’‌টি ডোজই পেয়ে গিয়েছেন। এই অসঙ্গতি ডেকে আনতে পারে বিপদ। আশঙ্কা রাষ্ট্রসঙ্ঘের। 

আকর্ষণীয় খবর