আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ গরম জলে বেটাডিন মিশিয়ে অন্তত ৩০ সেকেন্ড গার্গল করলেই নাকি শরীরে বাসা বেঁধে থাকা করোনার জীবাণুকে নির্মূল করে দেওয়া যায়। সম্প্রতি একটি গবেষণায় জানালেন সিঙ্গাপুরের একদল বিজ্ঞানী। সিঙ্গাপুরের ডিউক–এনএসএস মেডিক্যাল স্কুলের একটি গবেষণায় জানানো হচ্ছে, অ্যান্টিসেপ্টিক ক্রিম বেটাডিন নাকি করোনা প্রতিরোধে সক্ষম!‌ ‘‌ইনফেকশাস ডিজিজ অ্যান্ড থেরাপি’‌ জার্নালে গত ৮ জুলাই একটি রিপোর্ট প্রকাশ করা হয়। তাতে বলা হচ্ছে, ৩০ সেকেন্ডের মধ্যে ৯৯.৯% করোনভাইরাস ধ্বংস করতে পারে বেটাডিন অ্যান্টিসেপ্টিক। চিকিত্‍‌সায় টপিক্যাল অ্যান্টিসেপটিক হিসেবে বেটাডিন ব্যবহার করা হয়। এর মধ্যে পোভিডোন–আয়োডিন উপাদান রয়েছে, যা কিনা করোনার জীবাণু বিনাশে সক্ষম। 
শুধু সিঙ্গাপুরের বিশেষজ্ঞরাই নন, জাপানের অনেক গবেষকও মনে করেন, করোনা চিকিৎসায় বেটাডিন যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ। গবেষকেরা ৪১ জন কোভিড রোগীর উপর বেটাডিন প্রয়োগ করে দেখেন। এঁদের প্রত্যেকের হালকা উপসর্গ ছিল। গরম জলে মিশিয়ে আক্রান্তদের দিনে চারবার করে গার্গল করানো হয়। দেখা যায় আশাতীত ফল মিলেছে। যদিও বেটাডিন সংক্রান্ত গবেষণা এখনই প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে। আরও গবেষণার প্রয়োজন আছে, জানাচ্ছেন সিঙ্গাপুরের গবেষকরা। 

জনপ্রিয়

Back To Top