আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ সারা পৃথিবীতে তালা বন্ধ অবস্থায় পড়ে রয়েছে সমস্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। করোনার আঘাতে পড়ুয়ারা বাড়ির বাইরে পা রাখতে পারছে না। অনলাইনে চলছে পড়াশোনা। কিন্তু ভারতের মতো দেশে অনলাইনের সুবিধা সকলের কাছে নেই। দেশের অধিকাংশ পড়ুয়ার বাড়িতে স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটার নেই। কারওর বাড়িতে আবার টেলিভিশনও নেই। এমতাবস্থায় পড়াশোনা করা যেন দুরূহ!‌ তাও দেশের নানা জায়গায় নানা অভিনব উপায় বের করে পড়াশোনা চলছে। তবে আর কতদিন। একদিন না একদিন তো স্কুল খুলতেই হবে। পড়ুয়াদের ক্লাসে বসে পড়াশোনা করতেই হবে সকলের সঙ্গে। সেই প্রসঙ্গেই ইংল্যান্ডের কয়েকজন বিজ্ঞানী আগস্ট মাসের ৪ তারিখ সেই গবেষণাপত্র প্রকাশ করেন। গবেষণাটি করা হয়েছে ইংল্যান্ডের ভিত্তিতে। যদিও সেটি সব দেশেরই মাথায় রাখা উচিত। যদি করোনা দূর না হতেই স্কুল খুলে যায়, তবে কী কী হতে পারে।    
উঠে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য। বলা ভাল, ভয়াবহ তথ্য। করোনা পরীক্ষা ও সংক্রমণের উৎস সন্ধানে কঠোর ব্যবস্থা না নিয়েই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলি খুলে দিলে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ এসে পড়বে সেদেশে। এখন সেদেশে তিন লক্ষ সাত হাজার ২৫২ জনের শরীরে করোনা সংক্রমম ধরা পড়েছে। কিন্তু দ্বিতীয় ঢেউ প্রথমবারের থেকে আরও অনেক বেশি মারাত্মক হতে পারে বলে জানালেন গবেষকরা। প্রায় দ্বিগুণ হয়ে যাবে সংক্রমণের পরিমাণ। তখন সংক্রমণ রোখা সম্ভব হবে না। চিকিৎসার ঘাটতি শুরু হবে। 
ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডন, লন্ডন স্কুল অফ হাইজিন এবং ট্রপিক্যাল মেডিসিনের গবেষকেরাও দেখিয়েছেন, যদি করোনা পরীক্ষা, সংক্রমণের উৎস সন্ধান ও আইসোলেশন প্রকৃত অর্থে মেনে চলা না হয়, তবে দ্বিতীয় ঢেউ আসতে বাধ্য। 
যদি ২০২০ সালের সেপ্টেম্বরেই সকল স্কুল কলেজ খুলে দেওয়া হয়, তাহলে পরিস্থিতি আর নিয়ন্ত্রণে থাকবে নাই। মৃত্যুর হারও বেড়ে যাবে দ্বিতীয় ঢেউয়ে। করোনা পরীক্ষা, উৎস সন্ধান ও চিকিৎসার পরিকাঠামো সবদিক দিয়েই জোর পদক্ষেপ না নেওয়া পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধই রাখাই উচিত বলে জানিয়ে দিলেন তাঁরা। তবে এই গবেষণায় এও বলা হয়েছে, দ্বিতীয় ঢেউ আটকাতে হলে, মোট জনসংখ্যার ৭৫ শতাংশ উপসর্গযুক্ত মানুষের করোনা পরীক্ষা করতে হবে। এবং সেই মানুষগুলির সংস্পর্শে আসা ৬৮ শতাংশ মানুষকে খুঁজে বের করতে হবে। অথবা ৮৭ শতাংশ উপসর্গযুক্ত মানুষকে খুঁজে বের করতে হবে। এবং তাঁদের সংস্পর্শে আসা ৪০ শতাংশ মানুষের করোনা পরীক্ষা করতে হবে। তবেই করোনার দ্বিতীয় ঢেউকে প্রতিরোধ করা যাবে। 

জনপ্রিয়

Back To Top