আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ইওরোপের বিভিন্ন দেশে আঘাত হানছে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ। যার জেরে ফের একাধিক দেশ হাঁটছে কড়া লকডাউনের পথে। বুধবারই জার্মান সরকার নতুন করে দেশে বেশ কিছু নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল। বৃহস্পতিবার সেই পথেই পা বাড়াল ফ্রান্স। তারা জার্মানির থেকেও কড়া লকডাউনের পথে হাঁটছে। খোদ ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ নতুন করে বিধিনিষেধ ঘোষণা করেছেন। ইতালি এবং স্পেনেও বেশ কিছু নিষেধাজ্ঞা জারি রয়েছে এখনও।
আসলে করোনা নিয়ে বিশেষজ্ঞদের আশঙ্কাই যেন সত্যি হচ্ছে। একটা সময় মনে হচ্ছিল কোভিড–১৯ নামক মহামারী ইওরোপের দেশগুলি থেকে ধীরে ধীরে বিদায় নিচ্ছে। ধীরে ধীরে কমে আসছিল দৈনিক করোনা আক্রান্ত এবং মৃতের সংখ্যা। স্বাভাবিক জীবনে ফেরা শুরু করে দিয়েছিল ফ্রান্স, স্পেন, ইতালির মতো দেশগুলি। তখনই অবশ্য বিশেষজ্ঞরা আশঙ্কা করছিলেন, স্বাস্থ্যবিধি না মানলে ফের আঘাত হানতে পারে মারণ ভাইরাস। দ্বিতীয়বার আছড়ে পড়তে পারে এই অতিমারীর ঢেউ। ইওরোপে এখন সেটাই দেখা যাচ্ছে। তথ্য বলছে ফ্রান্সে ফের হু হু করে বাড়তে শুরু করেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। গত দু’‌দিন সেদেশে আক্রান্তের সংখ্যা ৫০ হাজারের বেশি। যা কিনা সেই এপ্রিল মাসের পর এই প্রথমবার হচ্ছে। ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ ঘোষণা করেছেন নয়া লকডাউন বিধি। যা চলবে ১ ডিসেম্বর অবধি। জানানো হয়েছে, জনসাধারণ জরুরি পরিষেবা ও চিকিৎসা পরিষেবা ছাড়া বাড়ি থেকে বেরতে পারবেন না। রেস্তোরাঁ, পানশালা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। তবে খোলা রাখা হচ্ছে স্কুল কারখানা। তবে মানতে হবে কড়া বিধিনিষেধ। নাইট কারফিউ জারি করা হয়েছে। 
 

জনপ্রিয়

Back To Top