আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ করোনা ভাইরাস আতঙ্কের মধ্যেই বাংলাদেশে মৃত্যু হল আরও একজনের। কিশোরগঞ্জের ভৈরব এলাকার বাসিন্দা ৩০ বছরের ওই যুবক ইতালি থেকে ফিরেছিলেন বলে জানা গেছে। মৃতের শরীরে করোনার জীবাণু ছিল। তবে রক্ত পরীক্ষার রিপোর্ট হাতে না আসা পর্যন্ত তিনি করোনা আক্রান্ত ছিলেন তা সরকারিভাবে বলা যাচ্ছে না। রবিবার রাত ১০টা নাগাদ তাঁর মৃত্যু হয়। এর ফলে এখনও পর্যন্ত মোট তিনজনের মৃত্যু হল বাংলাদেশে। আর মোট আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ২৭। 
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত ২৬ ফেব্রুয়ারি ওই যুবক ইতালি থেকে বাংলাদেশে ফেরার পরেই অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে তাঁকে প্রথমে আবেদিন জেনারেল হাসপাতালে ও পরে ডক্টরস চেম্বারে চিকিৎসা করানো হয়। রবিবার সেখানেই মৃত্যু হয় তাঁর। এই ঘটনার পরেই ওই দুটি বেসরকারি হাসপাতাল ও আশপাশের ১০টি বাড়িতে চলাচল সীমিত করা হয়েছে। 
এদিকে ঢাকার মিরপুরের টোলারবাগের এক বাসিন্দাও রবিবার সন্ধেয় মারা গিয়েছেন। মৃতের পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন, রবিবার বিকেলে ঢাকার কুর্মিটোলা হাসপাতাল থেকে জানানো হয় তিনি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত। এর আগে টোলারবাগের যে ব্যক্তি গত শনিবার রাতে মারা গিয়েছেন তাঁর সঙ্গে রবিবারে মারা যাওয়া ব্যক্তির ঘনিষ্ঠতা ছিল। মৃতের পাশের বাড়িতেই থাকতেন তিনি। 

জনপ্রিয়

Back To Top