সংবাদ সংস্থা, বেজিং: করোনা সংক্রমণের জন্য বিশ্বের অনেক দেশই চীনকে দোষারোপ করেছে। কড়া কথা বলতে ছাড়েনি আমেরিকা। সংক্রমণে মৃতের সংখ্যা ৩,৪০,০০০ ছাড়িয়েছে। কিন্তু ভাইরাস ছড়ানোয় তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ মানতে নারাজ চীন। চীনা গবেষকের দাবি, তঁাদের গবেষণাগারে করোনাভাইরাসের যে–‌তিনটি নমুনা রয়েছে, তার সঙ্গে প্রাণঘাতী কোভিড১৯–‌এর কোনও সাদৃশ্য নেই।
গত বছর ডিসেম্বরে চীনের উহান থেকে ছড়িয়েছিল সংক্রমণ। তার পর বিশ্বের প্রায় সব দেশেই থাবা বসিয়েছে করোনাভাইরাস। গবেষকদের একাংশের কথায়, বাদুড় থেকেই করোনার উৎপত্তি। তার পর তা কোনও স্তন্যপায়ী প্রাণী মারফত মানবশরীরে ঢুকেছে। নানা মহলের এ নিয়ে নানা মত। আর উহানের ইনস্টিটিউট অফ ভাইরোলজির ডিরেক্টর ওয়াং ইয়ানি সিজিটিএন–কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ভাইরাস ছড়ানো নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও অন্যদের বক্তব্য নাকচ করেছেন। তঁার কথায়, ‘‌ভাইরাস কোনও ভাবে ল্যাব থেকে ছড়িয়ে পড়েছে, এই খবর পুরোপুরি বানানো। বাদুড়ের শরীরে–‌থাকা করোনাভাইরাস নিয়ে পরীক্ষা চলছিল। এখন আমাদের কাছে জীবন্ত ভাইরাসের তিনটি ধরন রয়েছে। সেগুলির সঙ্গে সার্স–কোভ২–এর সাদৃশ্য মাত্র ৭৯.‌৮%‌।‌’‌ তিনি আরও জানান, গত বছর ৩০ ডিসেম্বর একটি অজানা ভাইরাসে নমুনা পান তঁারা। ভাইরাসের জিনের গঠন কেমন, তা ২ জানুয়ারি জানতে পারেন। ১১ জানুয়ারি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে সেই রিপোর্ট দেন। ৩০ ডিসেম্বরের আগে পর্যন্ত এই ভাইরাসের বিন্দুবিসর্গ জানতেন না তঁারা। ভাইরাসটির অস্তিত্বই তঁাদের জানা ছিল না। তা হলে গবেষণাগার থেকে সেই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়তে পারে কীভাবে, সেই প্রশ্ন তুলেছেন তিনি।‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top