আজকাল ওয়েবডেস্ক: চীনের আগ্রাসী নীতি ভারতের বিরুদ্ধে মুখ থুবড়ে পড়েছে। ভারতীয় সেনার এমন প্রত্যাঘাত লাল ফৌজ হয়তো স্বপ্নেও কল্পনা করেনি। জিনপিং-এর গদি বাঁচাতে আরো প্ররোচনামূলক পদক্ষেপ করতে পারে ড্রাগন বাহিনী। আশঙ্কা বাড়িয়ে রিপোর্ট দিচ্ছে মার্কিন পত্রিকা নিউজউইক। 
ওই মার্কিন রিপোর্টকে উদ্ধৃত করে সংবাদসংস্থা পিটিআই-তে লেখা হয়েছে, ভারতের বিরুদ্ধে চীনের আগ্রাসী নীতির কারিগর শি জিনপিং। কিন্তু এই নীতি ভারতের বিরুদ্ধে ধোপে টিকল না। ভারতীয় সেনার কড়া জবাবে এখন নিজের গদি বাঁচাতেই ব্যস্ত চীনের চেয়ারম্যান। 
জুন মাসে পূর্ব লাদাখের গালওয়ানে ভারত-চীন সংঘর্ষের পর থেকেই প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর উত্তেজনার পারদ চড়ছে। ওই সংঘর্ষে ভারতের কুড়ি জন জওয়ান শহীদ হলেও লাল ফৌজের কত জন সেনার মৃত্যু হয়েছে, সেই হিসেবে এখনো দেয়নি চীনা সরকার। তবে নিউজউইক-এর রিপোর্ট বলছে, ওই দিন অন্তত ৬০ জন চীন সেনার মৃত্যু হয়েছে। ড্রাগন বাহিনীর অতর্কিত হামলার পর ভারতীয় সেনা যেভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে লড়েছে, তা প্রকাশ্যে আনতে ভয় পাচ্ছে শি জিনপিং সরকার, বলছি রিপোর্ট। 
শুধু তাই নয়, গত আগস্ট মাসের শেষেও ভারতের জমি কব্জা করার পরিকল্পনা করেছিল চিনা বাহিনী। সেই পরিকল্পনাতেও জল ঢেলে প্যাঙ্গং হ্রদ-এর দক্ষিনে একাধিক উঁচু স্ট্র্যাটেজিক এলাকা দখল করে নিয়েছে ভারতীয় সেনা। যার জেরে বেশ বেকায়দায় পড়েছে লাল ফৌজ। নিউজউইক-এর রিপোর্ট বলছে, অনুপ্রবেশকারীদের এক ইঞ্চি জমিও ছেড়ে দিচ্ছে না ভারত।  হঠাৎ করে ভারতীয় সেনার এই তৎপরতা দেখে বেশ ঘাবড়ে গিয়েছে বেজিং। খেলা এখন ঘুরে গেছে। ভারতীয় সেনা এখন আগের চেয়ে অনেক বেশি আক্রমনাত্মক। বলা ভাল রক্ষণে আক্রমনাত্মক। হিমালয় অঞ্চলে চীনের আগ্রাসী নীতির এইভাবে মুখ থুবড়ে পড়ার বড় খেসারত চোকাতে হবে শি জিনপিং কে, লেখা হচ্ছে মার্কিন পত্রিকায়।

জনপ্রিয়

Back To Top